দিনাজপুরে ক্ষুদ্র খামারীর বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করায় ৭০০ মুরগী মরে প্রায় ১ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা ক্ষতির অভিযোগ

সোহাগ কিবরিয়া (ফুলবাড়ী)ঃদিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার ৯নং হামিদপুর ইউনিয়নের অন্তর্গত শুকদেবপুর গ্রামের মৃতঃ মফেজ উদ্দীন সরকারের পুত্র মোঃ মোবারক হোসেন ও মোঃ হামিদুলের পুত্র মোঃ জেনারুল ইসলাম অভিযোগ করেন যে, আমরা বেকারত্ব দূর করতে বাড়ীর পাশে ছোট্ট একটি মুরগীর খামার করি। খামারটিতে তাৎক্ষনিক ক্ষুদ্র শিল্প সংযোগ নিতে না পারায় নিজস্ব আবাসিক সংযোগ হতে সংযোগ নিয়ে বৈদ্যুতিক বাল্ব ব্যবহার করি এবং ক্ষুদ্র শিল্প সংযোগ পাওয়ার জন্য আবেদন করি। যাহার ট্রাকিং আইডি নং- ৪৪০৩১০৭৭৫২১৭৯২৯৭। আবেদন করার পর ৩০ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে আবেদন ফি ১১৫ টাকা জমা দেই। যাহার রশিদ নং- ৪৭০৪৫৯। পরবর্তীতে আমার আবেদনের প্রেক্ষিতে দিনাজপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর জোনাল অফিস হতে ওয়্যারিং পরিদর্শক মিজানুর রহমান মিজান সহ ২ জন তদন্তে আসেন। পরিদর্শন শেষে মিজান সাহেব বিভিন্ন সমস্যা দেখিয়ে আড়ালে ডেকে নিয়ে ৮০ হাজার টাকা দাবী করেন। বলেন ৮০ হাজার টাকা দিলে আপনাকে খুব দ্রæত ক্ষুদ্র শিল্প সংযোগের ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে। আমি উক্ত ৮০ হাজার টাকা দিতে অস্বীকার করলে বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ ঈর্ষামূলক আমার সংযোগটি হঠাৎ বিচ্ছিন্ন করেন। এতে আমার খামারের ৭০০ টি মুরগী মারা যায়। যার মূল্য প্রায় ১ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা। এরপর আমি বিদ্যুৎ অফিসে যোগাযোগ করলে আমাকে সংযোগ না দিয়ে বিভিন্ন রকম সমস্যা দেখিয়ে হয়রানী করছেন। বর্তমান সরকারের সময়ে বিদ্যুৎ সংযোগ না পাওয়া একটি মর্মাহত ঘটনা। যেখানে সরকার সারা বাংলার ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়ার অঙ্গীকার করেছেন। সেখানে অসাধু কিছু বিদ্যুৎ কর্মকর্তা সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করছেন বলে আমি মনে করি। এ বিষয়ে দিনাজপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ এর জোনাল অফিসের ডিজিএম আব্দুল আলিমের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, সেখানে টেকনিক্যাল কিছু সমস্যা থাকার কারণে আমরা বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। মিজানুর রহমান মিজানের ৮০ হাজার টাকা চাঁদা চাওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমি এ বিষয়ে কিছুই জানি না। আমরা লিখিত কোন অভিযোগ পেলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করব। এ বিষয়ে এলাকাবাসীর সাথে কথা হলে ঘটনা সত্য বলে অনেকেই স্বাক্ষী দেন এবং মোবারক আলীর এই সমস্যার দ্রæত সমাধান করে তাকে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। আমরা আশা করি বর্তমান সরকারের এই সময়ে বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়ে এমন নেককার নজক ঘটনা আর কোন গ্রাহকের সাথে যেন না ঘটে।

 

Photo Gallery

সম্পাদক ও প্রকাশক : সাহিদুর রহমান, অফিস : ৪৫, তোপখানা রোড (নীচতলা)পল্টন মোড়, ট্রপিকানা টাওয়ার, ঢাকা-১০০০।
অফিস সেল ফোন : ০১৯১১-৭৩৫৫৩৩। ই-মেইল : shiromonimedia@gmail.com,ওয়েব : www.shiromoni.com

Social Widgets powered by AB-WebLog.com.