Home জেলার খবর পাওনা টাকা চাওয়ায় কুপিয়ে জখম, এলাকায় বিক্ষোভ

পাওনা টাকা চাওয়ায় কুপিয়ে জখম, এলাকায় বিক্ষোভ

24
0
SHARE

 

তানবীর হাসান সিদ্দিকী, মাদারীপুর প্রতিনিধিঃ

পাওনা টাকা ফেরত চাওয়ার জেরে মাদারীপুরের কালকিনিতে তিনজনকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে প্রতিপক্ষ। আহতদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আর এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার। এদিকে আজ রোববার দুপুরে আসামীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে স্থানীয় এলাকাবাসী।
ভুক্তভোগী পরিবার ও মামলা সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার কয়ারিয়া এলাকার বড়চর কয়ারিয়া গ্রামের রাজ্জাক সরদারের ছেলে শাহাদাত সরদারের কাছ থেকে বেশ কিছুদিন আগে ব্যবসা করার জন্য ১ লাখ টাকা ধার নেন একই এলাকার মাসুদ কাজী। এ পাওনাকৃত টাকা ফেরত চাইলে মাসুদ কাজী বিভিন্ন তালবাহানা শুরু করেন। এ নিয়ে গত বুধবার দুপুরে শাহাদাত সরদারের সঙ্গে মাসুদ কাজীর বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায় মাসুদ কাজীর নেতৃত্বে মামুন হাওলাদার, টিপু হাওলাদার ও মনির হাওলাদারসহ বেশ কয়েকজন মিলে দেশি অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে শাহাদাত সরদারের বসতবাড়ি ভাংচুর চালায়। এসময় তাদের বাঁধা দিলে বৃদ্ধ আবদুর রাজ্জাক সরদার(৮০), নারী মারজানা বেগম(৩৩) ও শাহাদাত সরদারকে কুপিয়ে জখম করা হয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাদেরকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে কালকিনি হাসপাতালে ভর্তি করেন। কিন্তু সেখানে তাদের অবস্থার অবনতি হলে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়। এ হামলার ঘটনায় শাহাদাত সরদার বাদী হয়ে কালকিনি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। কিন্তু মামলা করার পরও আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। তাই ভুক্তভোগী পরিবারের উদ্যোগে আসামীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে স্থানীয় এলাকাবাসী বিক্ষোভ মিছিল করেন।

ভুক্তভোগী শাহাদাত সরদার ও মোঃ শাহিন সাংবাদিকদের বলেন, আমরা ধারের ১ লাখ টাকা ফেরত চাওয়ায় মাসুদ কাজী তার লোকজন নিয়ে এ হামলা করেছে। আমরা পুলিশ প্রশাসনের কাছে আসামীদের গ্রেফতারে দাবি জানাই। কারন থানা পুলিশ কোন আসামী এখন পর্যন্ত গ্রেফতার করতে পারেনি।

এ বিষয় অভিযুক্ত মাসুদ কাজীর কাছে জানতে চাওয়া হলে তাকে এলাকায় পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি মোঃ নাছির উদ্দিন মৃধা বলেন, আসামীদের গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here