1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৩:৫২ অপরাহ্ন

২৫ সেপ্টেম্বর নারী প্রধানমন্ত্রী পেতে পারে ইটালি

রিপোর্টার
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২২

আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর ইটালিতে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এর মাধ্যমে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এই প্রথম চরম-দক্ষিণপন্থী কোনো নেতা দেশটিতে ক্ষমতায় চলে আসতে পারেন। শুধু তাই নয়, এই প্রথম কোন নারী প্রধানমন্ত্রীও পেতে পারে ইউরোপের দেশটি।

সর্বশেষ জনমত জরিপে দেখা গেছে, জর্জা মেলোনির দল ব্রাদার্স অব ইটালি বেশ ভালোভাবেই এগিয়ে রয়েছে, এবং তিনি জয়ী হলে কয়েক দশক পর তার নেতৃত্বে দেশটিতে একটি দক্ষিণপন্থী জোট সরকার গঠিত হবে। এই মধ্য-ডানপন্থী জোটে রয়েছে তিনটি দল: জর্জা মেলোনির ব্রাদার্স অব ইটালি, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জাতীয়তাবাদী রাজনীতিক মাত্তেও সালভিনির নর্দার্ন লিগ এবং আরেক সাবেক প্রধানমন্ত্রী দক্ষিণপন্থী নেতা সিলভিও বারলুসকোনির ফরজা ইটালি।

শেষ পর্যন্ত যদি এই জোট জয়ী হয় তাহলে ইটালিতে তিনি যে শুধু প্রথম কোনো মহিলা প্রধানমন্ত্রী হবেন না তা নয়, একনায়ক বেনিতো মুসোলিনির পর তিনি হবেন প্রথম কোনো অতি-দক্ষিণপন্থী নেতাও। সম্প্রতি ইউরোপের আরো একটি দেশ সুইডেনের নির্বাচনেও এই প্রথমবারের মতো একটি উগ্র ডানপন্থী ও নব্যনাৎসী দল ক্ষমতার খুব কাছাকাছি চলে এসেছে।

ইটালিতে দু’মাস আগে গত জুলাই মাসে প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাঘির পদত্যাগের পর তার নেতৃত্বাধীন জোট সরকারের পতন ঘটে। এই পটভূমিতেই অনুষ্ঠিত হচ্ছে এবারের নির্বাচন যাকে ইউরোপের জন্যেও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে বিবেচনা করা হচ্ছে। ইটালির রাজনৈতিক নেতাদের দুর্নীতি ও কেলেঙ্কারির কথা প্রায়শই শোনা যায়। দেশটিতে যেমন খুব দ্রুত কোনো একটি রাজনৈতিক দলের উত্থান ঘটে, তেমনি খুব অল্প সময়ের মধ্যে তার জনপ্রিয়তা হারিয়েও যায়।

বিশ্লেষকরা বলছেন, গত কয়েক দশক ধরে মধ্য-বামপন্থী জোট সরকারগুলোর ব্যর্থতার কারণে ভোটাররা এখন সরকার পরিচালনায় বড় ধরনের গুণগত পরিবর্তন চাইছেন। বিশেষ করে বিশ্বের বর্তমান অর্থনৈতিক সঙ্কট, জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধি, কোভিড মহামারি-পরবর্তী পরিস্থিতি এবং ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে ভোটাররা এই নির্বাচনকে অনেক গুরুত্বপূর্ণ বলে বিবেচনা করছেন। সূত্র: বিবিসি।

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email
2 views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি