1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ১০:২০ অপরাহ্ন

ভারতে প্রথম আদিবাসী রাষ্ট্রপতি হবেন দ্রৌপদী মুর্মু

রিপোর্টার
  • আপডেট : বুধবার, ২২ জুন, ২০২২

ভারতের রাষ্ট্রপতি পদে নির্বাচনে ক্ষমতাসীন বিজেপি তাদের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে। ঝাড়খণ্ডের প্রাক্তন রাজ্যপাল ও ওড়িশার আদিবাসী নেতা দ্রৌপদী মুর্মুকে প্রার্থী করেছে দলটি। তিনি বিরোধী জোটের প্রার্থী যশবন্ত সিনহার বিরুদ্ধে লড়বেন। যদি মুর্মু বিজয়ী হন তাহলে তিনি হবেন দেশটির প্রথম আদিবাসী রাষ্ট্রপতি। খবর এনডিটিভির। নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, আগামী ১৮ জুলাই রাষ্ট্রপতি পদে ভোট হবে এবং ২১ জুলাই ভোট গণনা হবে। আর ২৫ জুলাই নতুন রাষ্ট্রপতি শপথ নেবেন। বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডা বলেছেন, রাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থী চূড়ান্ত করতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিজেপির সংসদীয় কমিটি বৈঠকে বসে। বৈঠক শেষে তার নাম ঘোষণা করা হয়। বৈঠকে রাষ্ট্রপতি পদের জন্য সম্ভাব্য ২০ জনের তালিকা নিয়ে আলোচনা হয়। দলের নেতারা সিদ্ধান্ত নেন পূর্ব ভারত থেকে একজনকে মনোনয়ন দেবেন, যিনি একজন আদিবাসী এবং নারী।৬৪ বছর বসয়ী মুর্মু ২০১৭ সালের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনেই শক্ত প্রতিন্দ্বন্দ্বী ছিলেন। কিন্তু সেবার বিহারের রাজ্যপাল ও দলিত নেতা রাম নাথ কোবিন্দকে সরকার রাষ্ট্রপতি পদের জন্য বেছে নিয়েছিল। ঝাড়খণ্ডের প্রথম নারী গভর্নর মুর্মু নিজের রাজনৈতিক ক্যারিয়ার শুরু করেন একজন কাউন্সিলর হিসেবে।  ওড়িশা থেকে তিনি দুইবার বিজেপির হয়ে বিধায়ক নির্বাচিত হয়েছেন এবং নাভিন পাটনায়েক মন্ত্রিসভার মন্ত্রীও হয়েছিলেন। তখন বিজেপির সমর্থনে ওড়িশায় বিজু জনতা দল বা বিজেডি শাসন ক্ষমতায় ছিল। এ ছাড়া তিনি ওড়িশার ময়ূরভঞ্জ জেলার বিজেপি সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন এবং রায়রাংপুর থেকে ওড়িশা বিধানসভায় প্রতিনিধিত্ব করেন।

Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email
5 views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ

© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি