1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : গোলাম সরোয়ার মেহেদী : গোলাম সরোয়ার মেহেদী বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : সাইদ হাসান কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি : সাইদ হাসান কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি
  4. [email protected] : মোঃ এরফান হোসেন কক্সবাজার প্রতিনিধি : মোঃ এরফান হোছাইন কক্সবাজার প্রতিনিধি
  5. [email protected] : সাখাওয়াত হোসেন সাকা চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : সাখাওয়াত হোসেন সাকা চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : রাকিব হাসান হাকন্দ ঢাকা ব্যুরো প্রধান : রাকিব হাসান হাকন্দ ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  7. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  8. [email protected] : Shahriar Ahmed : Shahriar Ahmed
  9. [email protected] : জুবায়ের চৌধুরী কাজল ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : জুবায়ের চৌধুরী কাজল ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : শাহ্ জামাল ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : শাহ্ জামাল ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : দেলোয়ার ইবনে হোসেন নোয়াখালী প্রতিনিধি : দেলোয়ার ইবনে হোসেন নোয়াখালী প্রতিনিধি
  13. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  14. [email protected] : এম এ সালাম রুবেল রংপুর ব্যুরো প্রধান : এম এ সালাম রুবেল রংপুর ব্যুরো প্রধান
  15. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
  16. [email protected] : S K Ali Badhan : S K Ali Badhan
শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
নারীশিশু মামলা তুলে না নেওয়ায় মধ্য রাতে ঘরে ঢুকে বাদীর বাড়িঘর ভাঙচুর নওগাঁয় ঘাসফুল সংস্থার ১৩ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ মামলায় আটক -১ সুন্দরগঞ্জে নির্বাচনী সহিংসতায় আ’লীগ নেতাসহ আহত ৬ গোপালপুরে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী আঙ্গুরের মিছিল ও গনসংযোগ পাসপোর্ট রেখে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী সেচব্যবস্থার টেকসই উন্নয়নে কাজ হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী নড়াইল কালিয়া চিত্রা নবগঙ্গার নদী ভাঙ্গনে আতংকিত বাজার ব্যাবসায়ীরা জয়পুরহাট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্র্যাইব্যুনালের বিচারক রুস্তম আলী প্রত্যাহার সৈয়দপুরে আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন করলেন প্রধানমন্ত্রীর সচিব নওগাঁর মান্দায় পুকুরের পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু

সিরাজগঞ্জে নেটজাল দিয়ে নদী ও জলাশয়ে চলছে মৎস্য নিধন, নিরব প্রশাসন

সেলিম রেজা সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি দৈনিক শিরোমণিঃ
  • আপডেট : বুধবার, ২০ অক্টোবর, ২০২১
সেলিম রেজা সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি দৈনিক শিরোমণিঃ সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে অবৈধভাবে নিষিদ্ধ নেটজাল ও বেড় জাল দিয়ে বিভিন্ন নদী, বিল ও জলাশয়ে স্থায়ী ভাবে ঘেড়াও করে মা মাছ, পোনা মাছ সহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ অবাধে নিধন চলছে।শাহজাদপুর পৌরশহরসহ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের নদী ও বিল অঞ্চলে এই দৃশ্য চোখে পড়ে। প্রথমে ডালপালা, কলমী ও কচুরি ফেলে মাছের অভয়াশ্রম তৈরি করে পরে নীল রংয়ের নেটজাল দিয়ে এভাবে ঘেড়াও করে মাছ ধরার ফলে দেশীয় প্রজাতির মাছ গুলো বিলুপ্তির পথে।জানা যায়, মৎস্য সম্পদ রক্ষা আইনে সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ রয়েছে যে, ৪.৫ সে.মি. এর কম ফাঁস জাতীয় যে কোন প্রকার জাল দিয়ে চাষ করা ব্যাতীত মাছ ধরার উদ্দেশ্যে ব্যবহার বা ঘেড়া দেওয়া নিষিদ্ধ। এবং এই পরিস্থিতিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার বিধান রয়েছে,তবে একশ্রেণীর অসাধু ব্যক্তি নিয়মনীতি ও আইনের তোয়াক্কা না করে ক্ষমতার দাপটে বিস্তির্ণ জলাশয়, নদী ও বিলে প্রায় ১ সে.মি. কমের ফাঁস জাতীয় এসকল নেট জাল বা বেড়জাল ব্যবহার করে মৎস্য সম্পদ ধ্বংসের মতো কাজে লিপ্ত রয়েছে।সরেজমিনে শাহজাদপুর পৌর শহরের বিসিক বাসস্ট্যান্ডে ও জে জে কল্যাণ ট্রাস্টের পশ্চিমের বিল ও উপজেলার পোতাজিয়া ইউনিয়নের রাউতরা, চড়া-চিথুলিয়া, পোতাজিয়া গ্রামের গিয়ে দেখা এই দৃশ্য দেখা যায়। একেকটি স্থানে প্রায় ১ কিলোমিটার অনেক স্থানে আধা কিলোমিটার নদী, বিল ও জলাশয়ের অংশ ঘেড়াও করে মাছ শিকার চলছে।স্থানীয় জেলেরা জানায়, এভাবে ঘেড়া দেওয়ার কারণে আমাদের মতো সাধারণ জেলেদের মাছ ধরার জায়গা সংকুচিত হয়ে পড়েছে। প্রায়ই এসকল ঘেড়াকারীর সাথে আমাদের মাছ ধরা নিয়ে বিরোধ তৈরি হচ্ছে এবং আমাদের হুমকি ও ধমক দেওয়া হচ্ছে। যদিও ঘেড়া দেওয়া অবৈধ তারপরও স্থানী মৎস্য অফিসের কর্মকর্তারা এই বিষয়ে কোন ব্যবস্থাই নেয় না।এই বিষয়ে আব্দুল আলীম নামের আরেকজন জেলে বলেন, নদীতে যখন পানি কমতে শুরু করে তখন এক শ্রেণীর প্রভাবশালী ব্যক্তি নদী, বিল ও জলাশয়ের বিস্তির্ণ এলাকা জুড়ে কাঠা বা ডালপালা ফেলে। এর ফলে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ সহ মা মাছ ও পোনা মাছ সেই জায়গায় আশ্রয় নেয়। কিছুদিন পরে সেই জায়গাটিকে নীল রংয়ের নেটজাল দিয়ে ঘেড়াও করে মাছ গুলোকে আটকে ফেলে, ফলে মা মাছ সেই ঘেড়ার ভেতরেই ডিম ছাড়ে।এসকল ঘেড়াতে যে নেট বা জাল ব্যবহার করা হয় সেগুলোর ফাঁস বা ফুটো এতোই ছোট যে পোনা মাছ, মাছের ডিম, এমনকি মায়লাও বের হতে পারে না। এসকল নেট জালের ফাঁস এতই কম যে অনুবীক্ষণ যন্ত্রের মাধ্যমে দেখতে হয় ‍ৃএই বিষয়ে শাহজাদপুর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সাথী রানী নিয়োগী বলেন, ৪.৫ সেন্টিমিটারের কম ফাঁসের জাল বা নেট দিয়ে যদি কেউ মাছের বিচরণ বাধাগ্রস্থ্য করে বা ঘেড়াও দেয় তাহলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email
0 views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক শিরোমনি