1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : গোলাম সরোয়ার মেহেদী : গোলাম সরোয়ার মেহেদী বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : সাইদ হাসান কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি : সাইদ হাসান কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি
  4. [email protected] : মোঃ এরফান হোসেন কক্সবাজার প্রতিনিধি : মোঃ এরফান হোছাইন কক্সবাজার প্রতিনিধি
  5. [email protected] : সাখাওয়াত হোসেন সাকা চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : সাখাওয়াত হোসেন সাকা চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : রাকিব হাসান হাকন্দ ঢাকা ব্যুরো প্রধান : রাকিব হাসান হাকন্দ ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  7. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  8. [email protected] : Shahriar Ahmed : Shahriar Ahmed
  9. [email protected] : জুবায়ের চৌধুরী কাজল ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : জুবায়ের চৌধুরী কাজল ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : শাহ্ জামাল ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : শাহ্ জামাল ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : দেলোয়ার ইবনে হোসেন নোয়াখালী প্রতিনিধি : দেলোয়ার ইবনে হোসেন নোয়াখালী প্রতিনিধি
  13. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  14. [email protected] : এম এ সালাম রুবেল রংপুর ব্যুরো প্রধান : এম এ সালাম রুবেল রংপুর ব্যুরো প্রধান
  15. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
  16. [email protected] : S K Ali Badhan : S K Ali Badhan
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:০০ পূর্বাহ্ন

কেশবপুরে স্বপ্ল মূল্যে চাল ও আটা বিক্রি

ঝন্টু কেশবপুর যশোর প্রতিনিধি দৈনিক শিরোমণিঃ
  • আপডেট : বুধবার, ২৮ জুলাই, ২০২১
ঝন্টু কেশবপুর যশোর প্রতিনিধি দৈনিক শিরোমণিঃ
যশোরের কেশবপুরে কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যেও স্বল্প আয়ের মানুষের খাদ্যের মৌলিক চাহিদা পূরণে ন্যায্যমূল্যে খোলা বাজারে চাল ও আটা বিক্রয় কার্যক্রম শুরু হয়েছে। কেশবপুরে খোলা বাজারে ন্যায্য মূল্যে প্রতিদিন ১ হাজার ২শ’ পরিবারের কাছে ৫ কেজি চাল ও ৫ কেজি আটা বিক্রি করা হচ্ছে।অনেক মধ্যবিত্ত শ্রেণির পরিবারকে ন্যয্য মূল্যে চাল ও আটা কিনতে দেখা যায়। করোনা কালে এসব পরিবার অর্থ সংকটে পড়েছেন বলে জানান।  কেশবপুর শহর এলাকার অনেক চেনা জানা  লোকজন ডিলারের কাছ থেকে ন্যায্যমূল্যে আটা ও চাল কেনার জন্য জটলার মধ্যে দাঁড়িয়ে ছিলেন। মঙ্গলবার কেশবপুর প্রেসক্লাব চত্বরে এসব খাদ্য সামগ্রী বিক্রি করা শুরু হয়। এ ছাড়া ভোগতি গ্রামের কালার পাশা নামক স্হানে দেওয়া হচ্ছে। কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অফিসের একটি সূত্র জানায়, ৪ জন ডিলারের প্রত্যেককে দেড় টন চাল ও একটন আটা বিক্রির জন্য দেয়া হয়। এই সল্প পরিমান চাল ও আটা দ্রুত বিক্রি হয়ে যায় বলে জানান ডিলার ওহাদিুজ্জামান বিশ্বাস।কেশবপুর নাগরিক সমাজের সভাপতি অ্যাডভোকেট আবু বকর সিদ্দিক জানান,কেশবপুর পৌর শহরে প্রায় ৫ হাজার শ্রমজীবী মানুষ রয়েছেন। তাদের এখন কাজকর্ম নেই। এজন্য করোনা মহামারির সময় প্রতিটি পরিবারকে বিনা মূল্যে খাদ্য সরবরাহ জরুরি। এবং মধ্যবিত্ত শ্রেণির জন্য কম মূল্যে আরও বেশি পরিমানে চাল,আটা বিক্রি করতে হবে।কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম আরাফাত হোসেন জানান,‘ করোনাকালে এখন লকডাউন চলছে। এজন্য কেশবপুর শহরের ৪টি স্থানে বিশেষ ব্যবস্থায় কম মূল্যে চাল ও আটা বিক্রি করা হচ্ছে।
Facebook Comments
Print Friendly, PDF & Email

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক শিরোমনি
Shares