1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৫৮ অপরাহ্ন

২৫ কোটি টাকা দামের লঞ্চ কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে

শিরোমণি ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট : রবিবার, ২ অক্টোবর, ২০২২

শিরোমণি ডেস্ক : সেতুতে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ উপকৃত হলেও লঞ্চ ব্যবসায় ভাটা পড়েছে শুরু থেকেই। ধারণা করা হয়েছিল, শুরুতে লঞ্চের যাত্রী কমলেও ধীরে ধীরে তা বাড়বে। কিন্তু সেই আশা ছেড়ে দিয়েছেন লঞ্চমালিকেরা। ভবিষ্যতে লঞ্চের যাত্রী স্বাভাবিক হবে তেমনাটাও আর ভাবছেন না দীর্ঘদিন ধরে ব্যবসায় জড়িত থাকা লঞ্চমালিকেরা।

লোকসান কমাতে প্রতিদিন ছয়টি লঞ্চ চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন লঞ্চমালিকেরা। প্রতিদিন ঢাকা প্রান্ত থেকে তিনটি লঞ্চ বরিশালের উদ্দেশে এবং বরিশাল প্রান্ত থেকে তিনটি লঞ্চ ঢাকার উদ্দেশে যাত্রী পরিবহন করবে।

লঞ্চে যাত্রী কমায় হতাশ মালিকেরা। এ কারণে নতুন করে লঞ্চ তৈরি দূরের কথা, পুরাতন লঞ্চগুলো কেটে কেজি দরে বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কেউ কেউ। এ কারণে রাজধানীর পোস্তগোলায় যেখানে একসময় লঞ্চ বানানো হতো, সেখানে এখন লঞ্চ কাটা চলছে। তবে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, লঞ্চ বেশি পুরোনো হলে এছাড়া অন্য কোনো রুটে পারমিট না পেলে লঞ্চ কেটে বিক্রি করা হয়। তবে যে লঞ্চগুলো কাটা হচ্ছে, সেগুলোর রুট পারমিট ছিল বলে জানিয়েছেন মালিকেরা।

দক্ষিণাঞ্চলের ২১টি জেলার বিভিন্ন রুটে লঞ্চ চলাচল করে। আরামদায়ক যাত্রা হিসেবে মানুষ লঞ্চকেই বেছে নিত। কিন্তু পদ্মা সেতুর কারণে বাড়ি পৌঁছাতে খুবই কম সময় লাগছে। এ কারণে আরামদায়ক যাত্রার চেয়ে সময়কেই বেশি মূল্য দিচ্ছেন দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ। যেখানে বরিশালে লঞ্চে যেতে ৬ ঘণ্টা সময় লাগছে। সেখানে পদ্মা সেতু পাড়ি দিয়ে তিন ঘণ্টায় পৌঁছে যাচ্ছে গন্তব্যে।

লঞ্চমালিকেরা বলছেন, একদিকে যাত্রী কমছে, অন্যদিকে বাড়ছে জ্বালানি তেলের মূল্য। এ কারণে ভাড়া বাড়াতে হয়। কিন্তু বেশি ভাড়া দিতে হবে—এ কারণেও যাত্রী লঞ্চে আসছে না।

Facebook Comments
৬ views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি