1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:০৯ পূর্বাহ্ন

সংবিধান সংশোধন করবে চীনা কমিউনিস্ট পার্টি

রিপোর্টার
  • আপডেট : শনিবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২২

দলীয় গঠনতন্ত্র অনুযায়ী পাঁচ বছরে শুধুমাত্র একবার কংগ্রেসের সময়ে সংবিধান সংশোধনের সুযোগ রয়েছে,আগামী মাসে নেতৃত্বের রদবদলের সময় চীনের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টি দেশের সংবিধান সংশোধন করতে যাচ্ছে। কিছু বিশ্লেষকের ধারণা, এর ফলে পার্টিতে প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের কর্তৃত্ব এবং মর্যাদা একীভূত হতে পারে।শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) চীনের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়া জানায়,  পরিবর্তনগুলো উল্লেখ করা ছাড়াই শি জিনপিংয়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত একটি বৈঠকে পলিটব্যুরো দলীয় সংবিধানের একটি খসড়া সংশোধনী নিয়ে আলোচনা করেছে।

ধারণা করা হচ্ছে, আগামী ১৬ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া কংগ্রেসে নজির ভেঙে শি জিনপিং তৃতীয়বারের মতো পাঁচ বছরের নেতৃত্ব পেতে যাচ্ছেন। ফলে গণপ্রজাতন্ত্রী চীনের প্রতিষ্ঠাতা মাও সেতুংয়ের পর চীনের সবচেয়ে শক্তিশালী নেতা হিসেবে তার মর্যাদা প্রতিষ্ঠিত হবে।

চীনা বৈশিষ্ট্যের সঙ্গে সমাজতন্ত্রের ওপর শি জিনপিংয়ের চিন্তাধারা অন্তর্ভুক্ত করতে ২০১৭ সালে সর্বশেষবার পার্টির সংবিধান সংশোধন করা হয়েছিল।প্রসঙ্গত, দলীয় গঠনতন্ত্র অনুযায়ী পাঁচ বছরে শুধুমাত্র একবার কংগ্রেসের সময়ে সংবিধান সংশোধন করা যেতে পারে।

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের অনুমান, সংবিধান সংশোধনের ফলে “শি জিনপিং চিন্তাধারা”-এর মতাদর্শ সংক্ষিপ্ত হয়ে “মাও সেতুং চিন্তাধারা”-তে উন্নীত হয়ে এর মর্যাদা বাড়তে পারে।অনেক বিশেষজ্ঞদের ভাষ্যমতে, সংবিধান সংশোধনের ফলে ১৯৮২ সালে বিলুপ্ত হওয়া পার্টি চেয়ারম্যানের সর্বোচ্চ পদটি পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হতে পারে। তবে সেটি হওয়ার সম্ভাবনা কম।

Facebook Comments
৬ views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি