1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০৯:১১ অপরাহ্ন

শৈলকুপায় কৃষকের ঘরে আগুন লেগে স্বপ্ন পুড়ে ছাই

Md Shamrat shah
  • আপডেট : রবিবার, ১ নভেম্বর, ২০২০

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি-

ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলায় এক কৃষকের রান্না ঘর থেকে আগুন লেগে পাশাপাশি তিনটি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে ঐ গরিব কৃষক পরিবারের প্রায় তিন লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে বলে জানা গেছে। ঘটনাটি (৩১শে অক্টোবর) শনিবার উপজেলার ১০নম্বর বগুড়া ইউনিয়নে ১নম্বর ওয়ার্ডের দোহা নাগিরাট গ্রামে ঘটে বলে জানা যায়।

এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ আব্দুস সালাম মিন্টু বলেন, দোহা নাগিরাট গ্রামে আনুমানিক রাত ১টার দিকে মোঃ অকামত মোল্লার ছেলে টোকন মোল্লা’র রান্না ঘরের চুলা থেকে আগুন লেগে চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে। টের পেয়ে ঘর থেকে বের হয়ে আগুন আগুন বলে চিৎকার করলে স্থানীয়রা ছুটে এসে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয়। এ সময় তার রান্নাঘরসহ একটি বসতঘর ও তার বাবা আকামত মোল্লার একটি গোয়াল ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। পরে ফায়ার সার্ভিস এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এতে তার পাট বিক্রয় করা নগদ ২০,০০০ টাকা ও ঘরের আসবাবপত্র সহ যাবতীয় কিছু পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

ইউপি সদস্য আরো বলেন, রাতের অনাকাঙ্ক্ষিত এই আগুনে গরিব ঐ কৃষকের সর্বোপরি তিন লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হতে পারে বলে তিনি মনে করেন। তিনি বলেন, ভুক্তভোগির ক্ষতিপূরণের জন্য আমি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সহ উপজেলা প্রশাসনের কাছে বিষয়টি জানিয়েছি।

স্থানীয়রা ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক টোকন মোল্লার প্রতি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, টোকন মোল্লার সবচেয়ে বড় ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে বসতঘর পুড়ে যাওয়ার কারণে। এখন ঐ পরিবারে রাত যাপন করার মতো আর কোনো ঘর নেই। এমনকি একটি কুঁড়েঘর করে থাকার মতো সামর্থ্য তার আর থাকলো না।

 

এবিষয়ে ক্ষতিগ্রস্থ টোকন মোল্লা স্থানীয় প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসনসহ সর্বস্তরের বিত্তবান মানুষের কাছে সাহায্য কামনা করেছেন।

Facebook Comments
৬ views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি