1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০৪:৫১ অপরাহ্ন

শুঁটকি পল্লীতে প্রেম করছেন সজল-সারিকা!

রিপোর্টার
  • আপডেট : শুক্রবার, ১৮ জুন, ২০২১

সবুজ কাজ করে কক্সবাজারের শুঁটকি পল্লীতে। বাবা-মাহীন সবুজ বেড়ে ওঠে এই পল্লীতেই। ভালোবাসে পরীকে। পরীর মা খাবারের হোটেল পরিচালনা করেন, সাথে সাথে শুঁটকিরও অপর দিকে শুঁটকি পল্লীর মহাজন শওকতও পছন্দ করে পরীকে। পরীও তাকে ফিরিয়ে দিতে পারে না। কারণ সবুজ তার অধীনেই কাজ করে।

যদি শওকত পরী ও সবুজের বিষয়টি জানতে পারে, তা হলে সবুজের ক্ষতি হতে পারে। পরী অনেকটা কায়দা করেই দু-জনের সাথে সমান্তরালভাবে তার ভালোবাসার অভিনয় চালিয়ে যায়। কিন্তু হঠাৎ এক রাতে পরী এমন একটা কাণ্ড করে বসে, যা তাদের কল্পনাতেও ছিল না।

কী সেই কাণ্ড? এর ফলে কী ঘটে? সেটা জানা যাবে ‘পরী থাকে আসমানে’ নামের নাটকটি দেখলে। এটি নির্মাণ করেছেন জনপ্রিয় নির্মাতা দীপু হাজরা।

এই নাটকে সবুজ চরিত্রে অভিনয় করেছেন সজল, পরী চরিত্রে সারিকা এবং শওকতের ভূমিকায় আছেন নজরুল রাজ। এছাড়াও অভিনয় করেছেন রাশেদা রাখী, নাছিম রেজা, শোভন, শাহরিয়া আলভিকা, সাইফ খান ও এস এইচ সুমন প্রমুখ।

ইউসুফ আলী খোকনের রচনায় ‘পরী থাকে আসমানে’ নাটকটি নির্মিত হয়েছে রাজ মাল্টিমিডিয়ার ব্যানারে। কক্সবাজারের শুঁটকি পল্লীসহ বিভিন্ন লোকেশনে চিত্রায়িত হয়েছে এটি।

১৮ জুন, শুক্রবার মাছরাঙ্গা টেলিভিশনে রাত ১০টায় প্রচারিত হবে ‘পরী থাকে আসমানে’ নাটকটি।

নাটকটি প্রসঙ্গে অভিনেতা সজল বলেন, কাজটি অনেক কষ্ট সাধ্য ছিল। কক্সবাজার থেকে ঘন্টা খানেক জার্নি করে একটি দূরবর্তী এলাকায় কাজটি করেছি। সেখানে ছিলো না শুটিং করবার মতো সুযোগ সুবিধা। নাটকটি করতে পুরো ইউনিটকেই বেশ কষ্ট করতে হয়েছে। গল্পটা ভালো ছিল। নির্মাণও দুর্দান্ত হয়েছে। আর দীপু হাজরা বরাবরই ভালো কাজ করেন, এটা নতুন করে বলার কিছু নেই। আশাকরি দর্শকরা ভালো কিছু পাবে।

Facebook Comments
০ views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি