1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ১১:০৩ পূর্বাহ্ন

রাঙামাটিতে সাংবাদিক সুমনের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের দাবি

রাঙামাটি জেলা প্রতিনিধি
  • আপডেট : শুক্রবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
রাজস্থলী প্রতিনিধি: রাঙ্গামাটি রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নের শফিপুর এলাকার  বাসিন্দা মানবাধিকার কর্মী,সৎ সাহসী ও মানবিক সাংবাদিক মোঃ সুমনের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়েরের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ বাঙ্গালহালিয়া বাজার চত্বরে ১৯শে আগস্ট শনিবার বিকালে বাঙ্গালহালিয়া বাজারের যাত্রী ছাউনীর সামনে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
মোছা-কুলসুম আক্তার, (২৯) পিতা-মোঃ জসিম উদ্দিন, মাতা- আয়েশা বেগম, সাং- শফিপুর, ডাকঘর- বাঙালহালিয়া, থানা- চন্দ্রঘোনা, জেলা- রাঙ্গামাটি বাদী হয়ে-মোঃ সুমন (৩৪) পিতা- আব্দুল মজিদ, মাতা- সুফিয়া বেগম, সাং- শফিপুর, ডাকঘর- বাঙ্গালহালিয়া, থানা- চন্দ্রঘোনা, উপজেলা- রাজস্থলী জেলা রাঙ্গামাটি কে আসামী করে চন্দ্রঘোনা থানায় ৯(১) ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী ২০০৩ তৎসহ ৩২৩/ ৩২৪/ ও ৩৮০ ধারায় মামলা দায়ের করেন।
জানাযায় ৩০ শে জুলাই রবিবার মোছাঃ কুলছুম আক্তার প্রতিদিনের ন্যায় স্বাভাবিকভাবে ঘুম যান রাতের বেলায় কিছু বকাটে দুষ্কৃতকারী বাসায় প্রবেশ করে হাত পা বেঁধে তার সাথে যৌন কাজে লিপ্ত হয় বলে কুলসুম আক্তার জানান। ভিকটিম মহিলা মোছাঃ কুলছুম আক্তার প্রথমে পুলিশকে জানান তারই প্রতিবেশী মৃত্যুঃ আইনুদ্দিনের ছেলে মোঃ আবুকালাম তাকে ধর্ষণ করেছে ভিকটিমের কথায় চন্দ্রঘোনা থানা পুলিশ মোঃ আবুকালামকে তিন দিন (৩০ শে জুলাই থেকে ১ আগষ্ট)পর্যন্ত  পুলিশি হেফাযতে রাখে।
এবং আবার ভিকটিম ১ আগষ্ট থানায় এসে পুলিশকে জানায আবুকালাম না আমার ভুল হয়েছে বলে থানা থেকে বনসহি দিয়ে থানা থেকে আবু কালামকে আবার ছাড়িয়ে নিয়ে যায়।
এদিকে সাংবাদিক মানবাধিকার তথ্য পর্যবেক্ষণ সোসাইটির কর্মী মোহাম্মদ ইদ্রিস অনুসন্ধানী নিউজ করতে গেলে জানাযায় ভিকটিম মহিলা বলে একাধিক পুরুষ তাকে ধর্ষণ করেছে । কিন্তু মোঃ সুমনের নাম মামলার এজাহারে কিভাবে আসছে জানতে চাইলে ভিকটিম বলে আমিতো সুমনের নাম বলিনাই। আমি বলছি একটা ওসি লিখছে আরেকটা।
এদিকে মোঃ সুমন ঘটনার ৮ দিন আগে ২১ শে জুলাই রোজ শুক্রবার তার নিজ বাড়ি খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলার, তবল ছড়িতে পিতার সম্পত্তি ভাগবণ্টন করে কিছুটা বিক্রির উদ্দেশ্য যায় এবং ২১ শে জুলাই থেকে ১০ই আগষ্ট পযন্ত সেখানে অবস্থান করে। যা বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত হয়। মোঃ সুমন ঘটনার সময় এলাকায় ছিলনা এই ঘটনার সাথে সে কোনোভাবেই জড়িত না কিন্তুু মামলার এজাহারে তার নাম কিভাবে আসে তা সর্বস্তরের এলাকাবাসীর মনে প্রশ্ন।
প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন অনতিবিলম্বে মোঃ সুমনের বিরুদ্ধে হয়রানি মুলক মিথ্যা ধর্ষণ মামলা প্রত্যাহার করে প্রকৃত রহস্য উৎঘাটন করে দোষী ব্যক্তিদের কে আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানান। বক্তারা আরো বলেন সাংবাদিক সুমন এলাকায় ছিলোনা তাকে হয়রানি করার জন্য এলাকার একটি প্রভাবশালী মহলের ইন্দনে তাকে আসামি করা হয়েছে বলে দাবি করেন তার স্ত্রী নুশরাত জাহান নিশু।
Facebook Comments
১ view

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি