1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ১০:৩২ পূর্বাহ্ন

মুক্তাগাছায় মহিলাকে মারধর থানায় অভিযোগ

আনিস মুক্তাগাছা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি,দৈনিক শিরোমণিঃ
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১
আনিস মুক্তাগাছা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি,দৈনিক শিরোমণিঃ মুক্তাগাছা তারাটি ইউনিয়নের কলাকান্দা গ্রামে পূর্বশত্রুতার জের ধরে পরিকল্পিত ভাবে দুই মহিলাকে অমানষিক নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সকালে। এ ব্যাপারে মুক্তাগাছা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। জানাযায়, কলাকান্দা গ্রামের রফিকুল ইসলাম এর বাড়ি সংলগ্ন স্থানীয় আব্দুর রহিম মাস্টার (বর্তমানে যোদ্ধাপরাধী মামলায় আটক হয়ে জেল হাজতে রয়েছে) এর তিন কাঠা জমি বর্গা চাষ করার জন্য রফিকুল ইসলাম হাল চাষ করে খেতের আইল বেঁধে রোপনের জন্য প্রস্তুত করে। উক্ত জমিতে একই গ্রামের কছিমদ্দিনের পুত্র হযরত আলী বুধবার সকালে চাষাবাদ করতে গেলে এ সময় রফিকুল এর স্ত্রী রেনুমালা (৩০) বাঁধা দেয়। এ সময় হযরত আলী তার পুত্র জিয়াউর রহমান এবং তার স্ত্রী রেনুফা বেগম দেশিয় অস্ত্রসহ রেনুমালা ও তার ননদ রাবেয়া (২৫) এর উপর হামলা চালিয়ে শ্লীলতাহানী সহ ব্যাপক মারধর করে গুরুতর যখম করে। স্থানীয় জনতা তাদেরকে উদ্ধার করে মুক্তাগাছা হাসপাতালে ভর্তি করেন। আহত রেনুমালা জানান, হামলাকারীদের কাছ থেকে দুটি দা উদ্ধার করে থানায় জমা দেওয়া হয়েছে। বিবাদী হযরত আলীর সাথে কথা হলে তিনি জানান, আব্দুর রহিম মাস্টারের জমি সে চাষাবাদ করে আসছে। উক্ত জমি সংলগ্ন বীজতলা বেড়া দেওয়ার জন্য আমার ছেলে দা, বাঁশ নিয়ে এসেছিল। এ সময় কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। দা, বাঁশ মারধর করার জন্য আনা হয়নি। স্থানীয় এলাকাবাসী জানান, রেনুমালার উপর হামলার ঘটনা অত্যন্ত দুঃখ  জনক। এ ব্যাপারে পুলিশ তদন্ত করলেই মূল ঘটনা বেরিয়ে আসবে। এব্যাপারে মুক্তাগাছা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমরা একটি অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
Facebook Comments
১৫ views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি