1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:১২ পূর্বাহ্ন

ভারত থেকে দেশে ফিরতেও লাগবে করোনা নেগেটিভ সনদ

রিপোর্টার
  • আপডেট : শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২০

ভারত থেকে ফেরা বাংলাদেশি পাসপোর্টধারীদের ফিরতে করোনা নেগেটিভ সনদ আনার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

গত বুধবার বিকেলে এ ধরনের নির্দেশনা এসেছে বেনাপোল ইমিগ্রেশন স্বাস্থ্যবিভাগে। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে কার্যকর হতে পারে এ নির্দেশ। এ সিদ্ধান্ত স্থলপথের পাশাপাশি রেল ও আকাশ পথে কার্যকর করা হবে।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন স্বাস্থ্যবিভাগের মেডিকেল অফিসার সুজন সেন জানান, “আগে বাংলাদেশিদের ভারতে যাওয়ার জন্যে এবং ভারতীয়দের বাংলাদেশে প্রবেশে করোনা নেগেটিভ সনদ বাধ্যতামূলক ছিল। তবে, এবার বাংলাদেশিদের ভারত থেকে ফেরার সময় এবং ভারতীয়দের ভারতে ফেরার সময় করোনা নেগেটিভ সনদ দেখাতে হবে বলে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে বাংলাদেশে অবস্থানরত ভারতীয়দের আসা ও যাওয়ার সময় করোনা পরীক্ষার সনদ গ্রহণের কার্যক্রম শুরু হয়েছে।”

ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আহসান হাবিব জানান, “পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপন হাতে পেয়েছি। ভারতে যাওয়া ও ভারত থেকে ফেরার সময় ৭২ ঘণ্টার মধ্যে দেশি-বিদেশি সব যাত্রীর করোনা পরীক্ষার নেগেটিভ সনদ সাথে থাকতে হবে বলে জানানো হয়েছে। বর্তমানে পূর্বের নিয়মে কার্যক্রম চলছে। পরবর্তী নির্দেশনা পৌঁছানো মাত্র করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে ইমিগ্রেশন পুলিশ যথাযথ দায়িত্ব পালন করবে।

একজন ভারতগামী বাংলাদেশী যাত্রী বলেন,”বাংলাদেশ থেকে যত লোক ভারতে যায়, সেই তুলনায় মাত্র পাঁচ শতাংশ ভারতীয় আসে বাংলাদেশে। জরুরিভাবে ভারত ভ্রমণে বাংলাদেশে করোনা পরীক্ষা করতে এক হাজার পাঁচশ’ টাকা লাগছে। ভারতে বাংলাদেশিদের জন্যে করোনা পরীক্ষার ফি কত পড়বে তা এখনো পর্যন্ত জানা যায়নি। দু’বার করোনা পরীক্ষায় অর্থের পাশাপাশি ভোগান্তি বাড়বে আমাদের।”

Facebook Comments
২ views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি