1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০২:৪২ অপরাহ্ন

ফরিদপুরে মুক্তিযোদ্ধার ওপর হামলার প্রতিবাদে মানবন্ধন

 হৃদয় শীল মধুখালী প্রতিনিধি, দৈনিক শিরোমণিঃ
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২১
 হৃদয় শীল মধুখালী প্রতিনিধি, দৈনিক শিরোমণিঃ ফরিদপুরের মধুখালীতে পাওনা টাকা চাওয়ায় বীরমুক্তিযোদ্ধা মুজিবর রহমান মোল্যার ওপর টোপ শাহিনের হমলার প্রতিবাদে আড়পাড়া ইউনিয়ন বাসীর আয়োজনে মানবন্ধন  ও  বিক্ষোভ কর্মসুচী  অনুষ্ঠিত হয়েছে।
২৮ এপ্রিল বুধবার বেলা ১১টায় উপজেলার আড়পাড়া ইউনিয়নের আড়পাড়া ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গড়াই সেতুর টোলপ্লাজা  এলাকার  উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীরমুক্তিযোদ্ধা  মোঃ খুরশিদ আলমের সভাপতিত্বে মানবন্ধন বিক্ষোভে বক্তব্য রখেন বীরমুুক্তিযোদ্ধা শেখ আঃ বারেক,আঃ সালাম মন্ডল,পরমানন্দ বিশ্বাস, আড়পাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মোঃ হিটলার শেখ, স্থানীয় মোঃ হুমাউন কবির ও মো.সাইফুল ইসলাম প্রমুখ। মানববন্ধন পরবর্তী  বিক্ষোভ মিছিল টোলপ্লাজা এলাক প্রদক্ষিণ করে কর্মসূচী শেষ হয় ।  উলে­খ উপজেলার আড়পাড়া ইউনিয়নের রাজধরপুর গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা মুজিবর রহমান মোল্যার শারিরীক প্রতিবন্ধি ছেলে মোঃ খোকন মোল্যা (৪০) ক্ষুদ্র মুদি ব্যবসায়ী । খোকনের দোকান থেকে  টোপ শাহিন নিয়মিত বাকী ও নগদে পন্য ক্রয় করতেন। ২৬ এপ্রিল সোমবার বিকেলে  শাহিনের কাছে বাকীর টাকা চাইলে  সে উত্তেজিত হয়ে দোকানের মালামাল ভাংচুর বা তজনজ করে । খোকন শারিরীক প্রতিবন্ধি হওয়ায় কোন প্রতিবাদ করতে পারে নাই । দোকান ভাংচুরের সংবাদ জানতে পেরে বীরমুক্তিযোদ্ধা মুজিবর রহমান মোল্যা শাহিনীরে বাড়ীতে গিয়ে তাকে জিজ্ঞাসা করলে সে উত্তেজিত হয়ে অমানুষিক মারধর করে । তার শোর চিৎকারে বীরমুক্তিযোদ্ধার পরিবারের লোকজন  তাকে উদ্ধারের জন্য এগিয়ে গেলে তাদেরও জোট বদ্ধ হয়ে মারধর করে। বীরমুক্তিযোদ্ধার ছেলের বৌ রহিমা  এগিয়ে গেলে তাকে শ্লিলতাহানী করে এবং স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয় এবং শারিরীক জখম করে। বীরমুক্তিযোদ্ধা মুজিবর রহমান মোল্যা গুরুতর আহত হলে  রাতেই তাকে চিকিৎসার জন্য মধুখালী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমান তিনি চিকিৎসাধীন আছেন। বীরমুক্তিযোদ্ধা মুজিবর রহমান মোল্যা বাদী হয়ে রাতে মধুখালী থানায় অভিযোগ দায়ের  করেন।  মধুখালী থানা পুলিশ রাতেই ঘটানার প্রধান অভিযুক্ত আসামী টোপ শাহিনকে মধুখালী সদর হাসপাতাল থেকে  আটক করে। শাহিনের সহযোগিরা হলো মুন্সী শেখ,রিবা বেগমা ,মোঃ হৃদয় শেখ, অন্তর শেখ ও নবেলা বেগমসহ প্রমুখ।  টোপ শাহিন বর্তমানে জেল হাজতে আছেন।
Facebook Comments
৩ views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি