1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:০৪ পূর্বাহ্ন

পুরুষের যেভাবে কাপড় পরা হারাম

রিপোর্টার
  • আপডেট : রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০

ধর্ম ডেস্ক : অহংকার প্রকাশ করে এমন সব কাজই নারী-পুরুষ উভয়ের জন্য হারাম বা নিষিদ্ধ। তা পোশাক পরাসহ প্রসাধনীর ব্যবহার ও অন্যান্য বিষয়েও হতে পারে। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পুরুষদের জন্য টাখনুর নিচে কাপড় পরাকে নিষিদ্ধ করেছেন। একাধিক হাদিসে এভাবে কাপড় পরার ভয়াবহ শাস্তির কথা উল্লেখ করেছেন।
টাখনুর নিচে ঝুলিয়ে কাপড় পরার ব্যাপারে বিশেষভাবে সতর্ক করেছেন। ঝুলিয়ে কাপড় পড়া নিষিদ্ধের অন্যতম কারণ হলো- এতে মানুষের মাঝে অহংকার প্রকাশ পায়। আর মানুষের জন্য অহংকার করাকে আল্লাহ তাআলা হারাম করেছেন। হাদিসে এসেছে-
হজরত জাবের ইবনে সুলাইম রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘টাখনুর নিচে ঝুলিয়ে কাপড় পরার ব্যাপারে সাবধান হও। কারণ, তা অহংকারের অন্তর্ভুক্ত। আর আল্লাহ অহংকার করাকে পছন্দ করেন না।’ (আবু দাউদ)
পায়ের গোড়ালির নিচে ঝুলিয়ে কাপড় পরা ব্যক্তির দিকে মহান আল্লাহ ফিরে তাকাবেন না বলেও ঘোষণা করেছেন বিশ্বনবি। হাদিসে এসেছে-
হজরত আবু যর রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‌কেয়ামতের দিন আল্লাহ তাআলা ৩ ব্যক্তির সঙ্গে কথাও বলবেন না আর তাদের দিকে ফিরেও তাকাবেন না। এমনকি তাদের গোনাহ থেকেও পবিত্র করবেন না। বরং তাদের জন্য রয়েছে কঠোর শাস্তি।
আমি জিজ্ঞাসা করলাম, তারা কারা? কাজেরে কো এর ধ্বংস। তাদের মুক্তির কোনো পথ নেই। (কেননা) রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এ কথাটি ৩বার বলেছেন। তারা হলো-
– যে ব্যক্তি পায়ের গোড়ালির নিচে কাপড় (লুঙ্গি/প্যান্ট/পাজামা) ঝুলিয়ে পরে।
– যে ব্যক্তি মিথ্যা কসম/শপথ করে ব্যাবসার পণ্য বিক্রয় করে।
– যে ব্যক্তি উপকার করার পর আবার খোঁটা দেয়।’ (মুসলিম, তিরমিজি, আবু দাউদ ও ইবনে মাজাহ)
গোড়ালির নিচে ঝুলিয়ে কাপড় পরার শাস্তি
দুনিয়াতে যে বা যারা অহংকার প্রকাশ করতে গিয়ে গোড়ালির নিচে কাপড় ঝুলিয়ে পরবে। তাদের সঙ্গে পরকালে আল্লাহ শুধু কথা বলবেন না বা তাদের পবিত্র করবেন এমনটিই নয়, বরং তাদের গোড়ালির নিচের আবৃত অংশ জাহান্নামের আগুন জলতে থাকবে। হাদিসে এসেছে-
হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘লুঙ্গির (পাজামা/প্যান্ট) যে অংশ (পুরুষের পায়ের) গোড়ালির নিচে থাকবে তা আগুনে জলবে।’ (বুখারি)
অন্য বর্ণনায় এসেছে, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, পুরুষের শরীরের যে কোনো পোশাক (লুঙ্গি, প্যান্ট, পাজামা, পাঞ্জাবি, জুব্বা) টাখনু বা পায়ের গোড়ালির নিচে ঝুলে পড়া হারাম তথা নিষিদ্ধ। পোশাক যদি টাখনুর নিচে ঝুলে যায়, তবে টাখনুর নিচের ঐ অংশকে জাহান্নামের অংশ বলে ধরা হয়।’ (বুখারি)
সুতরাং মুমিন মুসলমান পুরুষদের উচিত, পায়ের গোড়ালি বা টাখনুর নিচে যে কোনো কাপড় পরা থেকে বিরত থাকা আবশ্যক। কেননা এ কাজের ভয়াবহ শাস্তির ঘোষণা এসেছে হাদিসে। তাই পুরুষের জন্য লুঙ্গি, পাজামা, প্যান্ট, জুব্বাসহ যে কোনো পোশাকই টাখনুর উপরে পরা জরুরি।
আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে হাদিসের নির্দেশনা মেনে পোশাক পরার ক্ষেত্রে হারাম কাজ থেকে বেঁচে থাকার তাওফিক দান করুন। আমিন।

Facebook Comments
২ views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ

© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি