1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০১:২১ অপরাহ্ন

পটিয়ায় ৪৮ হাজার পিস ইয়াবা সহ আটক-২

মোরশেদ আলম, পটিয়া,প্রতিনিধি,দৈনিক শিরোমণিঃ
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ২৫ মে, ২০২১

মোরশেদ আলম, পটিয়া,প্রতিনিধি,দৈনিক শিরোমণিঃ
পটিয়া উপজেলার কমলমুন্সিরহাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে লবণবোঝাই একটি ট্রাক থেকে ৪৮ হাজার পিস ইয়াবাসহ দুই মাদক কারবারিকে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ৯ টায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের পটিয়া উপজেলার কমলমুন্সিরহাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়। এ সময় ইয়াবার চালান পরিবহনের দায়ে বোঝাইকৃত লবণসহ একটি ট্রাক (ঢাকা মেট্টো-ট-২৪-৩১২৭) জব্দ করা হয়েছে। যার আনুমানিক বাজার মূল্য প্রায় ১ কোটি ৪৪ লাখ টাকা। আটককৃতরা হলেন, ট্রাকের চালক মোহাম্মদ মাসুম মিয়া (৪০) সে ময়মনসিংহ জেলার কতোয়ালী থানার ১৯ নং ওয়ার্ডের বলাশপুর এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে ও হেলপার আলো হোসেন (৩০) সে একই এলাকার আবদুল খালেকের ছেলে। পটিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারিক রহমান জানান, ‘কক্সবাজার থেকে ইয়াবার চালান আসছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পটিয়া উপজেলার কমলমুন্সিরহাট এলাকায় মহাসড়কে চেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশি চালায় পটিয়া থানা পুলিশ। এ সময় লবণবোঝাই একটি ট্রাক দ্রুত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে ট্রাকটিকে থামিয়ে তল্লাশি করা হয়। তল্লাশির পর ট্রাকে লুকানো ৪৮ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। যার বাজারমূল্য আনুমানিক প্রায় ১ কোটি ৪৪ লাখ টাকা। আটক দুই মাদক চোরাকারবারীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান তিনি। তিনি আরও জানান, ‘পরিবহন সেক্টরে’ এ চক্রটির বেশ কিছু সিন্ডিকেট রয়েছে। নিজেদের পেশার আড়ালে গোপনে মাদক কারবারীর সাথে জড়িত তারা। কক্সবাজারের স্থানীয় কিছু দালাল ও মাদক ডিলারদের যোগসাজশে পণ্যবাহী পরিবহনের চালক ও সহকারীদের মোটা অঙ্কের টাকার বিনিময়ে ঢাকায় পাচার করা হচ্ছে ইয়াবা। এই চক্রের নিয়ন্ত্রণাকারী টেকনাফের দালাল রফিক এবং ব্যবস্থাপনার সার্বিক দায়িত্বে রয়েছে চালক মাসুম বলে জানিয়েছে পুলিশ। প্রসঙ্গত, গত ২০১৮ সালের ৮ আগস্ট ১ লাখ ৯৬ হাজার পিস ইয়াবাসহ লবন বোঝ্ইা ট্রাক চালক মাসুম মিয়া ও সহকারী আলো হোসেনের পিতা আবদুল খালেককে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের পূর্বাঞ্চল এলাকায় র‌্যাব-১ হাতে গ্রেফতার হয়েছিল বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারিক রহমান।

মোরশেদ আলম, পটিয়া।

Facebook Comments
৪ views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি