1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০৮:২৩ পূর্বাহ্ন

তালাবদ্ধ ঘরে যুবকের মরদেহ: ৩ বন্ধু গ্রেপ্তার

রেদোয়ান হাসান সাভার,ঢাকা প্রতিনিধি,দৈনিক শিরোমণিঃ
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২৭ মে, ২০২১
রেদোয়ান হাসান সাভার,ঢাকা প্রতিনিধি,দৈনিক শিরোমণিঃ
সাভারের আশুলিয়ায় চাকরি দেয়ার নামে দেওয়া টাকা ফেরত চাওয়ায় আল আমিনকে খুন করে তিন বন্ধু। এঘটনায় তিন বন্ধুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২৭ মে) দুপুরে তাদের আদালতে পাঠানো হবে। এর আগে বুধবার (২৬ মে) রাতে গাজীপুরের কোনাবাড়ি থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়৷ নিহত আল-আমিন পাবনা জেলা বেড়া থানার মঞ্জু মিয়ার ছেলে৷গ্রেফতাররা হলো- পাবনা জেলার সাথীয়া থানার ধুলাউড়ি গ্রামের মাহাতাব ব্যপারির ছেলে সোহেল (২২), আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে আব্দুল আলীম (১৭) ও খালেকের ছেলে জিহাদ (১৮)।  নিহত ও হত্যাকারিরা আশুলিয়ার কাঠগড়া এলাকায় শামসুন্নাহারের বাড়ি ভাড়া নিয়ে থাকতো। তারা একে অপরের বন্ধু। পুলিশ জানায়, গত ২৩ মে রাতে আশুলিয়ার কাঠগড়া এলাকায় শামসুন্নাহারের বাড়ি থেকে এক অজ্ঞাত যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা হলে বিভিন্ন সূত্রের মাধ্যমে নিহতের সাথে থাকা তার বন্ধুদের গ্রেফতার করা হলে নিহতের নাম পরিচয় পাওয়া যায় এবং এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা উদঘাটন হয়। গ্রেফতার আসামিদের প্রথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে আল-আমিনরা চার বন্ধু ও একই এলাকার বাসিন্দা। সোহেল নামের বন্ধু নিহত আল-আমিনের কাছে চাকরি নেওয়ার কথা বলে ৯০ হাজার টাকা নেয়। সেই চাকরি না দিতে পারায় আল-আমিন টাকা ফেরত চায় এবং অপমান করে। সেই ক্ষোভে সোহেলসহ বাকি তিন বন্ধু মিলে তাকে হত্যা করে ঘর বন্ধ করে পালিয়ে যায়। পরে গতকাল রাতে তাদের মোবাইল ট্রেকিং করে গাজীপুর থেকে গ্রেফতার করা হয়। এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফজর আলী বলেন, মুলত টাকার জন্য বন্ধুকে খুন করে তার মোবাইল ফোন নিয়ে তারা পালিয়ে যায়। তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে সেই মোবাইলের অবস্থান জেনে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার আসামিদের আজ আদালতে পাঠানো হবে।
Facebook Comments
৩ views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি