1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ০৫:৩৬ অপরাহ্ন

গোয়ালন্দে বসতঘর থেকে সাপের বাচ্চা ও ডিম উদ্ধার

নাজমুল হোসেন, রাজবাড়ী জেলা প্রতিনিধি
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ৪ জুলাই, ২০২৪

নাজমুল হোসেন, রাজবাড়ি জেলা প্রতিনিধি: রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলায় উজানচর ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের নতুনপাড়া গ্রামের মর্ডান হ্যাচারীর পাশে আরিফ শেখের পরিত্যক্ত বসত ভিটা ঘরের মেঝে থেকে ৪৪(চৌয়াল্লিশ) টি খৈয়া গোখরা সাপের বাচ্চাসহ ৪৪টি ডিম উদ্ধার করেছে লিটন সাপুড়ে।

বুধবার সকাল থেকে লিটন সরকার সাপুড়ে ঘরের মেঝে খুঁড়ে খুঁড়ে এ সাপগুলো বের করেন। এ সময় সাপ দেখতে শত শত মানুষ বাড়িতে ভিড় জমায়।

স্থানীয়রা জানান, আগের রাতে আরিফ শেখের স্ত্রী ঘর থেকে বের হয়ে তাঁদের টিউবওয়েলে যান এ সময় তিনি বিশাল আকৃতির সাপ দেখেন এবং সাপের বাচ্চা দেখতে পান। এ সময় তিনি চিল্লাচিল্লি শুরু করেন। এরপর এলাকার অনেক মানুষ তাঁদের বাড়িতে এসে ভিড় জমায়। অনেক খোঁজাখুঁজির পর লিটন সাপুড়ে নামে একজন কে মোবাইল কল দেয়া হয়। সাপুরে জানান বুধবার সকালে এসে দেখবেন। এরপর সকালে তিনি মাটির ঘর খোঁড়া শুরু করেন। এরপর তিনি সাপের বাচ্চা গুলো বের করে নিয়ে আসেন। তবে বড় দুটি গোখরা সাপ ধরতে পারেননি গোখরা সাপ দুটি পালিয়ে গেছে। এখন আতঙ্কে রয়েছে পুরো এলাকাবাসী।

লিটন সরকার সাপুড়ে জানান, আমার কাছে একটা গাছ রয়েছে। প্রথমে এই গাছ দিয়ে পুরো বাড়ি বন্ধক করেছি। এরপর আমার শিশ্য ও আমি কোদাল দিয়ে খুঁড়ে খুঁড়ে সাপের বাচ্চা গুলো বের করেছি মাটির নিচ থেকে। এবং সাপের দুটি বড় ছলম পেয়েছি।এখন আর এই বাড়িতে সাপ নেই।

এ ব্যাপারে উজানচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলজার হোসেন মৃধা জানান,বর্ষা মৌসুম এজন্য সাপের উপদ্রক বেড়েছে। তবে আমি সবাইকে অনুরোধ করব সচেতনভাবে চলাফেরা করুন। রাতের আঁধারে টর্চ লাইট ব্যবহার করুন। এছাড়া সাপের আতঙ্ক কাটাতে আমরা কৃষকদের মাঝে গাম বুট দিয়েছি।

Facebook Comments
no views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি