1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০৮:৩৬ অপরাহ্ন

ক্লুলেস বৃদ্ধা হত্যার রহস্য উন্মোচন, গ্রেপ্তার ২

রিপোর্টার
  • আপডেট : শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২১
রেদোয়ান হাসান ,সাভার,ঢাকা,দৈনিক শিরোমণিঃ
ঢাকার সাভারের বিরুলিয়ায় ফাতেমা বেগম নামে এক বৃদ্ধার রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। গত শুক্রবার নিজ বাড়িতে সংঘটতি এই হত্যাকান্ডটি ক্লুলেস হিসেবেই প্রাথমিক সুরতহালের পর জানায় পুলিশ। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে জাহিদুল আলম অজ্ঞাতনামা আসামি করে সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
শুক্রবার দুপুরে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে হত্যাকান্ডের ঘটনায় দুইজনকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বাহিনীটি।
গ্রেপ্তার আসামিরা হলেন- নওগাঁ জেলার রবিউল মির্জা (২৮) ও গাইবান্ধা জেলার কামরুল ইসলাম (১৮)। তারা উভয়ই পেশায় রাজমিস্ত্রী এবং ভিকটিমের বাসার পাশেই একটি বাসায় তাদের রাজমিস্ত্রির কাজ চলমান ছিল।
র‌্যাব জানায়, গত ৭ এপ্রিল ফাতেমা বেগম নামের ওই বৃদ্ধাকে সাভারের বিরুলিয়ায় তার নিজ বাসায় অজ্ঞাতনামা আসামীরা হত্যা করে পালিয়ে যায়। দুই দিন পর ৯ এপ্রিল নিহতের ছেলে ও পরবর্তীতে সাভার মডেল থানার সহযোগিতায় ভিকটিমের লাশ উদ্ধার করা হয়। এরই প্রেক্ষিতে সাভার মডেল থানায় অজ্ঞাতনামা আসামীদের উল্লেখ করে একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়। মামলাটি চাঞ্চল্যকর ও ক্লুলেস হওয়ায় পুলিশি তদন্তের পাশাপাশি ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটনে ছায়া তদন্ত শুরু করে র‌্যাব। পরে প্রযুক্তির সহায়তায় গতকাল দুপুর ও রাতে অভিযান চালিয়ে সাভারের বিরুলিয়া এলাকা থেকে দুই জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ভিকটিমের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি উদ্ধার করা হয়।
র‌্যাব আরও জানায়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তার আসামীরা হত্যার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে। মূলত ঘটনার দিন আসামীদ্বয় ভিকটিমের বাসার পাশেই আরেকটি বাসায় রাজমিস্ত্রির কাজ করছিলো। ভিকটিমকে গোসলখানায় যেতে দেখে আসামীদ্বয় বাসায় ঢুকে চুরি করার চেষ্টা করলে ভিকটিম বাধা প্রদান করে এবং আসামীদ্বয় পা দিয়ে সজোরে আঘাত করে অজ্ঞান করে ফেলে। পরবর্তীতে ঘটনাটি জানাজানি হয়ে যাওয়ার ভয়ে আসামীদ্বয় ভিকটিমকে বাথরুমেই হত্যা করার পরিকল্পনা করে। পরিকল্পনামাফিক রবিউল ভিকটিমের ঘর থেকে একটি কোদাল নিয়ে এসে ভিকটিমের হাতে, মুখে, ও গলাসহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় এলোপাতাড়িভাবে কুপিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করে বাথরুমের পাশে ফেলে রাখে। পরে তারা সেখান থেকে আবার পাশের বাসায় কাজে চলে যায়। যাতে ঘটনাটি কেউ বুঝতে না পারে।
র‌্যাব-৪ এর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সাজেদুল ইসলাম সজল বলেন, ‘প্রযুক্তির সহায়তায় দুই খুনীকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। দুপুরে তাদের সাভার মডেল থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে।
Facebook Comments
১৩ views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি