1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০১:১১ অপরাহ্ন

কুড়িগ্রামে হাসপাতালে সরকারি ঔষধ পুড়ানোর অভিযোগ 

রিপোর্টার
  • আপডেট : রবিবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২১
ইউনুছ কুড়িগ্রাম  জেলা প্রতিনিধি,দৈনিক শিরোমণিঃ
রৌমারী উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের রোগীদের জন্য সরকারের বরাদ্দকৃত নামিদামি
ওষুধ পুড়ানোর অভিযোগ উঠলেও এর দায় নিতে চাচ্ছেন না কেউ। রোববার দুপুরে
উপজেলা কমপ্লেক্স চত্বরে মসজিদের পাশের পরিত্যক্ত জায়গায় ওষুধগুলো পুড়ানো
অবস্থায় দেখেন মসজিদে নামাজ পড়তে আসা কয়েকজন মুসল্লি। পরে ঘটনাটি
জানাজানি হলে মুহুর্তেই হাসপাতাল চত্বরে উৎসুক জনতার ভিড় জমে ওঠে। নিজ চত্বরে
এমন ঘটনা ঘটলেও না জানার দাবি কতর্ৃপক্ষের। এঘটনায় এলাকার মানুষের মাঝে ব্যাপক
ক্ষোভ ও সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের
প্রশাসনিক ভবনের ৩০গজ দূরেই হাসপাতাল মসজিদ। এ মসজিদ লাগুয়া পরিত্যক্ত একটি জায়গায় বিভিন্ন
ধরনের নামিদামি সরকারি ওষুধ পুড়ানো অবস্থায় স্তুপ আকারে পড়ে রয়েছে। ওই
মসজিদে নিয়মিত নামাজ পড়তে আসা এক মুসল্লি জানান, ‘যোহর
নামাজের সময় অজু করতে গিয়ে হঠাৎ সামনে কালো একটি স্তুপ চোখে পড়ে।
কাছে গিয়ে দেখি এতে নানা ধরনের ওষুধ পুড়ানো হয়েছে।’
হাসপাতালে সেবা নিতে আসা রফিকুল ইসলাম, আব্দুস সালাম, নুরকালাম,
রিয়াজুল হক, শেফালী বেগম ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে
আসলে সব ওষুধ বাইরে থেকে কিনতে হয়। অথচ সরকারের লক্ষ লক্ষ টাকার ওষুধ
পুড়িয়ে ফেলা হচ্ছে। এঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি জানান।
পুড়ানো ঔষধ গুলো সরকারি বলে নিশ্চিত করে রৌমারী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার
পরিকল্পনা কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান বলেন, কে বা কারা সরকারি ঔষধ গুলো
পুড়িয়েছে তা আমার জানা নেই। তিনি আরও বলেন, এঘটনায় আবাসিক
মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা.সেলিম মিয়াকে প্রধান করে তিন সদেস্যর
একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
Facebook Comments
১৪ views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি