1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ১০:৫৯ অপরাহ্ন

এ্যাসাইনমেন্ট জমা নেওয়ার কথা ব‌লে মাদ্রাসা ছাত্রীকে ডে‌কে এন‌ে ধর্ষণ

Md Shamrat shah
  • আপডেট : বুধবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২০

কয়রা-পাইকগাছা প্রতি‌নি‌ধি-

খুলনার পাইকগাছায় চতুর্থ শ্রেনীর মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে লস্কর-পাইকগাছা ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার সুপারকে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। এ ঘটনায় ধর্ষণ মামলা হয়েছে। পুলিশ ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য খুমেক হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

 

মামলা সূত্রে জানা যায়, কয়রা উপজেলার খিরোল গ্রামের মৃত আব্দুল হাকিম সরদারের পুত্র মোঃ হাবিবুর রহমান (৫৫) পাইকগাছা উপজেলাধীন লস্কর-পাইকগাছা ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার সুপার হিসেবে প্রায় দেড় বছর চাকরীরত রয়েছে।

 

গত সোমবার ৬টার দিকে মাদরাসার পার্শ্ববর্তী ছাত্রীর বাড়ীতে যায় এবং তাকে মাদরাসায় এসাইনমেন্ট আনার জন্য বলে চলে আসে। মেয়েটি ৮টার দিকে মাদরাসায় গেলে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে তার নিজ শয়ন কক্ষে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। মেয়েটি কাঁদতে কাঁদতে বাড়ীতে আসলে মেয়ের নানী এলাকাবাসীর সহায়তায় থানায় এসে জানায়। পাইকগাছা থানা ওসির নির্দেশে মাদরাসার সুপার হাবিবুর রহমানকে গ্রেপ্তার করে থানায় আনে। এ ঘটনায় ভিকটিমের নানী বাদী হয়ে বুধবার পাইকগাছা থানায় ধর্ষণ মামলা করে, যার নং- ০২, তারিখ- ০২/১২/২০২০ইং। পুলিশ ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে। সুপার হাবিবুর রহমান জানান, কমিটি নিয়ে দ্বন্দের কারনে আমাকে ফাঁসানো হয়েছে।

 

ওসি এজাজ শফী জানান, ধর্ষণের অভিযোগে সুপারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য খুমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Facebook Comments
২২ views

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি