1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : বরিশাল ব্যুরো প্রধান : বরিশাল ব্যুরো প্রধান
  3. [email protected] : cmlbru :
  4. [email protected] : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান : চট্রগ্রাম ব্যুরো প্রধান
  5. [email protected] : ঢাকা ব্যুরো প্রধান : ঢাকা ব্যুরো প্রধান
  6. [email protected] : স্টাফ রিপোর্টারঃ : স্টাফ রিপোর্টারঃ
  7. [email protected] : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান : ফরিদপুর ব্যুরো প্রধান
  8. [email protected] : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান : সম্রাট শাহ খুলনা ব্যুরো প্রধান
  9. [email protected] : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান : ময়মনসিংহ ব্যুরো প্রধান
  10. [email protected] : আমজাদ হোসেন রাজশাহী ব্যুরো প্রধান : রাজশাহী ব্যুরো প্রধান
  11. [email protected] : রংপুর ব্যুরো প্রধান : রংপুর ব্যুরো প্রধান
  12. [email protected] : রুবেল আহমেদ : রুবেল আহমেদ
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৪৩ অপরাহ্ন

অক্ষয়ের বিরুদ্ধে ইউটিউবারের পাল্টা আইনি নোটিশ

রিপোর্টার
  • আপডেট : সোমবার, ২৩ নভেম্বর, ২০২০

এবার অক্ষয় কুমারের অভিযোগের বিরোধিতা করে পাল্টা আইনি নোটিশ পাঠালেন ইউটিউবার রশিদ সিদ্দিকী। এরই সঙ্গে মানহানির মামলায় দাবি করা ৫০০ কোটি রুপি দিতেও অস্বীকার করেন তিনি।

রশিদের দাবি, তার ভিডিও-তে বলিউড তারকার মানহানি হয় এমন কিছু নেই। এমনকি অক্ষয় কুমারের কাছে রশিদের আরজি, মামলা তুলে নেওয়ার জন্য। শুক্রবার আইনজীবী জেপি জয়েসওয়ালের সহযোগিতা নিয়ে জবাব পাঠিয়েছেন রশিদ সিদ্দিকী।

তার মতে, অক্ষয়ের দাবি পুরোপুরি মিথ্যে। হেনস্তা করার জন্যই এমন দাবি করা হয়েছে।

জবাবে আইনজীবী বলেছেন, “মানহানির জন্য ৫০০ কোটি রুপি চাওয়া একেবারেই অস্বাভাবিক। রশিদ সিদ্দিকীর ওপর চাপ তৈরি করতেই এমন কথা বলা হয়েছে।”

আরও দাবি, বিভিন্ন সময় অক্ষয় কুমারের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ তুলেছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মানুষ। বেছে বেছে বিহারের এই ইউটিউবারকেই কেন টার্গেট করলেন অক্ষয়? এর পেছনে গভীর ষড়যন্ত্র রয়েছে বলেই মনে করছেন তারা।

সুশান্ত সিং রাজপুতের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীকে অক্ষয় কুমার কানাডায় পালিয়ে যেতে সাহায্য করেছিলেন। ইউটিউবের ভিডিও এমনই দাবি করেছিলেন রশিদ। এ কারণে ‘খিলাড়ি’ কুমার ওই ইউটিউবারের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন। ৫০০ কোটি রুপি ক্ষতিপূরণের আবেদন করেছেন অভিনেতা। ভাবমূর্তি নষ্ট করে একাধিকবার গুজব রটানোর জন্যই এই মামলা।

এর আগেও রশিদ সিদ্দিকীকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। তখন তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে, সুশান্ত মামলায় মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে এবং তার ছেলে আদিত্য ঠাকরের নাম টেনে আনার জন্য।

রশিদ দাবি করেছেন, ‘এম এস ধোনি’র মতো বড় সিনেমায় সুযোগ পাওয়ায় সুশান্তর ওপর রেগে ছিলেন অক্ষয়। ওই সময় নাকি মুম্বাই পুলিশ ও আদিত্য ঠাকরের সঙ্গে গোপনে বৈঠক করেছিলেন অভিনেতা।

Facebook Comments
১ view

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২২ দৈনিক শিরোমনি