আ.লীগের এতো ভোটার গেল কই

শিরোমণি অনলাইন ডেস্ক:  ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কম ভোটারের উপস্থিতি নিয়ে সর্বত্র চলছে নানামুখী আলোচনা ও বিশ্লেষণ। রাজনৈতিক-অরাজনৈতিক মহল, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক ও টিভি টকশো থেকে শুরু করে গতকাল রবিবার অফিস-আদালত, দোকানপাটসহ সব জায়গাতেই আলোচনার মুখ্য বিষয় ছিল ভোটারের খরা। এসব আলোচনায় কান পেতে কমন যে প্রশ্নটি সর্বাধিকবার কানে এসেছে, সেটি হলো—আওয়ামী লীগের ভোটাররাই গেল কই?

যৌক্তিক-অযৌক্তিক নানা কারণে বিএনপির কর্মী-সমর্থক ও সাধারণ ভোটারদের সিংহভাগ ভোট দিতে কেন্দ্রে না গেলেও ক্ষমতাসীনদের নেতা-কর্মী-সমর্থক-শুভাকাঙ্ক্ষীদেরও বিপুল অংশ কেন ভোট দিতে যাননি সেটিই এখন কোটি টাকার প্রশ্ন হয়ে খাড়া হয়েছে। এই প্রশ্ন উত্থাপনকারীরা বলছেন, আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী-সমর্থকদের বেশির ভাগ ভোট দিতে গেলেও ভোটকেন্দ্রে ভোটারের উপস্থিতির চিত্রটা এমন হতো না। কারণ স্বাভাবিক জরিপ মতেই দলভেদে ঢাকা সিটির মোট ভোটারের বেশির ভাগ আওয়ামী লীগের সমর্থক। তাছাড়া শনিবারের ভোটের ঘোষিত ফলাফলের হিসাব মতে, দুই সিটিতে আওয়ামী লীগের দুই মেয়র প্রার্থী এবার যে ভোট পেয়েছেন তা ২০১৫ সালে একই দলের বিজয়ী মেয়রদ্বয়ের প্রাপ্ত ভোটের চেয়ে অনেক কম।

আওয়ামী লীগের সমর্থক ভোটারদেরও বিরাট অংশের ভোট দিতে কেন্দ্রে না যাওয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব মো. আলমগীরও। ইসি সচিব গতকাল সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘অনাস্থার কারণে মানুষ ভোট দিতে যাননি, এটা আমার কাছে মনে হয়নি। অনাস্থার কারণে যদি ভোটে না যেতেন, তাহলে যারা সরকারি দল তাদের তো অন্তত ভোটে অনাস্থা নাই। তাদের যদি সব ভোটার ভোট দিতেন, তাহলেও তো এত কম ভোট পড়ত না। তার মানে হলো যারা সরকারকে সমর্থন করেন, তাদেরও অনেক ভোটার ভোট দিতে যাননি।’

Photo Gallery

সম্পাদক ও প্রকাশক : সাহিদুর রহমান, অফিস : ৪৫, তোপখানা রোড (নীচতলা)পল্টন মোড়, ট্রপিকানা টাওয়ার, ঢাকা-১০০০।
অফিস সেল ফোন : ০১৯১১-৭৩৫৫৩৩। ই-মেইল : shiromonimedia@gmail.com,ওয়েব : www.shiromoni.com

Social Widgets powered by AB-WebLog.com.