এক বাসেই বাংলাদেশ থেকে ভারত যাওয়া যাবে

নাগরিকত্ব আইন এবং জাতীয় নাগরিকত্ব নিবন্ধন নিয়ে বিতর্ক চলছে ভারতে। এ নিয়ে ব্যাপক বিক্ষোভও হয়েছে। এরই মধ্যে বাংলাদেশ থেকে ভারতে সরাসরি সড়ক যোগাযোগ চালু করা হচ্ছে। ভারতের ইংরেজি দৈনিক দ্য ইকোনমিক টাইমসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বঙ্গোপসাগর আঞ্চলিক যোগাযোগের উদ্যোগের অংশ হিসেবে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ফলে বৃহস্পতিবার থেকে পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় পর্যটন স্পট শিলিগুড়ি ও দার্জিলিংয়ে এক বাসেই বাংলাদেশ থেকে যাতায়াত করা যাবে। নতুন এই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সীমান্তে যাত্রীদের আর বাস পরিবর্তন করতে হবে না, যা আগে দরকার হতো।

বাংলাদেশ সরকারের সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের এক বৈঠকে আঞ্চলিক নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণের লক্ষ্যে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। যত দ্রুত সম্ভব বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে সরাসরি সড়ক যোগাযোগ স্থাপনের জন্য বৈঠকে তাগিদ দেওয়া হয়।

২০১৫ সালের ১৫ জুন বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত ও নেপাল মোটরযান চুক্তিতে স্বাক্ষর করে। চার দেশের মধ্যে অবাধ পণ্য ও যাত্রী সেবার লক্ষ্যে এ চুক্তি স্বাক্ষর হয়। কিন্তু পরবর্তীতে ভুটান চুক্তি থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নেওয়ায় তা থমকে যায়।

বাংলাদেশের সরকারি এক কর্মকর্তা দ্য ইকোনমিক টাইমসকে ফোনে বলেন, ‘ঢাকা-শিলিগুড়ি-গ্যাংটক (সিকিম)-ঢাকা এবং ঢাকা-শিলিগুড়ি-দার্জিলিং-ঢাকা রুটে প্রাথমিকভাবে বাস চালুর পরিকল্পনা করেছে ঢাকা।’

সরকারি এই কর্মকর্তা আরও জানান, ইতোমধ্যে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে সড়কপথে যোগাযোগ রয়েছে। তবে সরাসরি যোগাযোগ ব্যবস্থা নেই। সীমান্তে পৌঁছে বাস পরিবর্তন করতে হয় যাত্রীদের। কিন্তু নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, যাত্রীদের সীমান্তে আর বাস পরিবর্তন করতে হবে না।

সম্প্রতি নয়াদিল্লি সফরকালে বাংলাদেশ-ভারত দ্বিপাক্ষিক মোটরযান চুক্তি নিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে আলোচনা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

Photo Gallery

সম্পাদক ও প্রকাশক : সাহিদুর রহমান, অফিস : ৪৫, তোপখানা রোড (নীচতলা)পল্টন মোড়, ট্রপিকানা টাওয়ার, ঢাকা-১০০০।
অফিস সেল ফোন : ০১৯১১-৭৩৫৫৩৩। ই-মেইল : shiromonimedia@gmail.com,ওয়েব : www.shiromoni.com

Social Widgets powered by AB-WebLog.com.