পশ্চিমবঙ্গে কংগ্রেস-বামফ্রন্ট আসন সমঝোতা

অনলাইন ডেস্ক : কংগ্রেসের সঙ্গে আসন সমঝোতা করেই আগামী লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে বামফ্রন্ট লড়াই করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে কে কোন আসন নেবেন তা নিয়ে এক পক্ষকাল ধরে আকচা-আকচি চলছে। কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী ও সিপিআইএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি গতবারের বিজয়ী আসনে পরস্পরের বিরুদ্ধে প্রার্থী না দেবার সিদ্ধান্ত নেবার পর বাকি আসন ভাগাভাগি নিয়ে আলোচনার সুষ্ঠু সমাধান শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত না হওয়ায় বামফ্রন্ট ১৭টি আসন কংগ্রেসের জন্য ফাঁকা রেখে বাকি ২৫টি আসনে প্রার্থী ঘোষণা করেছে। বামফ্রন্ট অবশ্য সেলিব্রিটির দিকে ঝুঁকতে চায় নি। 

বরং দলের অভিজ্ঞদের উপরেই ভরসা রেখেছে। সেই মতই প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। বামফ্রন্ট শরিক সিপিআই, আরএসপি এবং ফরোয়ার্ড ব্লককে তিনটি করে আসন দেওয়া হয়েছে। বাকি ১৭টিতে সিপিআইএম প্রার্থীরা লড়াই করবে।

তবে আরও কিছু আসনে ওই ধরণের কোনও প্রার্থীকে সমর্থন করা হতে পারে বলে ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছে। বামফ্রন্ট জানিয়ে দিয়েছে,  কংগ্রেসের সঙ্গে ভোটে তারা জোটে যাচ্ছে। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, কংগ্রেসের জেতা চারটি আসনে বামেরা কোনও প্রার্থী দেয়নি। 

সিপিআইএম গতবারের জয়ী  রায়গঞ্জ এবং মুর্শিদাবাদে পুরনোদেরই প্রার্থী করেছে। রায়গঞ্জে প্রার্থী হয়েছেন মহম্মদ সেলিম এবং মুর্শিদাবাদে বদরুদ্দোজা খান। কলকাতার যাদবপুর কেন্দ্রে বিশিষ্ট আইনজীবী বিকাল রঞ্জন ভট্টাচার্য, দক্ষিণ কলকাতা কেন্দ্রে নন্দিনী মুখোপাধ্যায়কে প্রার্থী করা হয়েছে। ডায়মন্ড হারবার কেন্দ্রে প্রার্থী হয়েছেন প্রয়াত সাবেক স্পিকার হাসিম আবদুল হালিমের ছেলে ফুয়াদ হালিম। দমদম কেন্দ্র থেকে লড়াই করবেন নেপালদেব ভট্টাচার্য। বিশিষ্ট চিকিৎসক নেতা রেজাউল করিমকে প্রার্থী করা হয়েছে বীরভূম থেকে। তবে তিনি কোন প্রতীকে লড়াই করবেন তা এখনো ঠিক হয়নি। 

বামফ্রন্টের প্রার্থী তালিকায় অবশ্য মাত্র চারজন মহিলার নাম রয়েছে। এরা হলেন পুরদুয়ারে আরএসপি প্রার্থী মিল ওরাও, কলকাতা দক্ষিণে সিপিএম প্রার্থী নন্দিনী মুখোপাধ্যায়, রাণাঘাটে রমা বিশ্বাস ও উলুবেড়িয়ায় মাকসুদা খাতুন। এদিকে পুরুলিয়া কেন্দ্রে ফরওয়ার্ড ব্লক প্রার্থী বীর সিং মাহাতো এবং বসিরহাট কেন্দ্রে সিপিআই প্রার্থী পল্লব সেনগুপ্তর নাম ঘোষণা করা হলেও শুক্রবারের বৈঠকে বামফ্রন্ট সিদ্ধান্ত নিয়েছে, কংগ্রেস মনে করলে ওই দুটি কেন্দ্রে তারাও প্রার্থী দিতে পারে। 

সেক্ষেত্রে বামেরা প্রার্থী প্রত্যাহার করবে কিনা সে ব্যাপারে কিছু জানানো হয়নি। তবে বামফ্রন্টের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, কংগ্রেসের জন্য বাকি আসনগুলি ছেড়ে রাখা হয়েছে। শূন্যস্থান পূরণ না হলে বামেরা পরে আরও কিছু আসনে প্রার্থী দিতে পারে। ঝাড়গ্রামে প্রার্থী হতে ইচ্ছুক ঝাড়খন্ড পার্টির চূনীবালা হাঁসদার মেয়ে বিরবাহা হাঁসদা। সূত্রের খবর, পরিস্থিতি তেমন হলে বিরবাহাকে সমর্থন করতে পারে বামফ্রন্ট। বামনেতারা অবশ্য মনে করছেন, রাজ্যে মানুষ ঘুরে দাঁড়াচ্ছেন। এ সবই পরিস্থিতির পরিবর্তনের ইঙ্গিত। 

Photo Gallery

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সাহিদুর রহমান,অফিসঃ ২২/১, তোপখানা রোড (৫ম তলা) বাংলাদেশ সচিবালয়ের উত্তর পার্শ্বে, ঢাকা-১০০০।
অফিস সেল ফোনঃ ০১৬১১-৯২০ ৮৫০, ই-মেইলঃ shiromoni67@gmail.com ,ওয়েবঃ www. Shiromoni.com

Social Widgets powered by AB-WebLog.com.