গেরিলা কায়দায় প্রচারে মির্জা আব্বাস

অনলাইন ডেস্ক :   আমি যেভাবে প্রচারণা চালাচ্ছি, মনে হয় গেরিলা কায়দায় প্রচারণা চালাচ্ছি। ৪০ বছরের রাজনৈতিক জীবনে এমন অবস্থা দেখিনি।’ সাংবাদিকদের বলছিলেন মির্জা আব্বাস। ঢাকা-৮ আসনে বিএনপির এই প্রার্থী গতকাল প্রচারে নেমেছিলেন পাঁচ দিন পর। সর্বশেষ ১৫ ডিসেম্বর প্রচারে নেমে তিনি হামলার শিকার হন।

গতকাল শুক্রবার ছুটির দিনে দুপুর সোয়া ১২টায়, তাঁর শাহজাহানপুরের বাড়ি থেকে তিনি যাত্রা শুরু করেন। এদিন কোনো অপ্রিয় ঘটনা ঘটেনি। মালিবাগ ও শান্তিনগর এলাকায় নির্বিঘ্নেই ঘণ্টাখানেক গণসংযোগ শেষে বাসার সামনে তিনি সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন।

নির্বাচনে কেমন পরিবেশ দেখছেন—জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘গণসংযোগে নামার আগে খবর পেলাম চারদিকে দেড় থেকে দুই শ মোটরসাইকেল নিয়ে বিরোধীরা অপেক্ষমাণ। আমরা কোন দিকে যাব, তারা সেখানে আকস্মিকভাবে হামলা চালাবে। আমি তাদের সে সুযোগ দিইনি। তাদের সমস্ত পরিকল্পনা ভেস্তে গেছে। এখন ধীরে ধীরে ওদের সব পরিকল্পনা ভেস্তে যাবে।’

অন্যান্য দিনের চেয়ে গতকাল মির্জা আব্বাসের গণসংযোগের কৌশল ছিল ভিন্ন। বরাবর তিনি আগের রাতেই জানিয়ে দেন, কোন এলাকায় গণসংযোগ করবেন। তবে গতকালের গণসংযোগ কোন এলাকায় হবে, তা আগাম কাউকে জানানো হয়নি। ক্ষমতাসীন দলের হামলা এড়াতেই এই কৌশল।

আব্বাসের ঘনিষ্ঠরা বলেছেন, গতকালের গণসংযোগের তথ্য আগের দিন পুলিশকে লিখিতভাবে জানানো হয়নি। কারণ পুলিশকে জানানো হলে সে তথ্য ক্ষমতাসীন দলের নেতা-কর্মীদের কাছে চলে যায়। আর ক্ষমতাসীন দলের নেতা-কর্মীরা সেই এলাকায় ওত পেতে থাকে। সেখানে গেলেই তারা হামলা চালায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, দুপুর সোয়া ১২টার দিকে মির্জা আব্বাসের হাজারখানেক অনুসারী তাঁর শাহজাহানপুরের বাসা থেকে বের হয়ে রাজারবাগ পুলিশ লাইনের উত্তর পাশের সড়ক হয়ে মালিবাগের দিকে রওনা করেন। নেতা-কর্মীদের মিছিল মালিবাগ মোড়ের কাছাকাছি এলে আব্বাস এখান থেকে মিছিলে যুক্ত হন। পরে শান্তিনগর মোড়, শান্তিনগর বাজার ও এই এলাকার অলিগলিতে গণসংযোগ শেষে বেলা একটার দিকে বাসায় ফেরেন।

মির্জা আব্বাসের গণসংযোগে গতকাল মালিবাগ ও শান্তিনগর এলাকায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বাড়তি উপস্থিতি ছিল না। সাধারণত বিরোধী দলের প্রার্থীদের গণসংযোগকে কেন্দ্র করে সংশ্লিষ্ট এলাকায় আগে থেকেই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ব্যাপক উপস্থিতি থাকে।

গণসংযোগ শেষে মির্জা আব্বাস সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, এর আগে তাঁর ওপর হামলার বিষয়ে নির্বাচন কমিশনে লিখিত অভিযোগ করা হলেও এর কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।  ‘ইসি মনে হয় কিছু দেখেও দেখে না’ বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আব্বাস বলেন, ‘আমি এই এলাকার সন্তান। এখানে শুধু নির্বাচন করতে আসিনি। এ এলাকার জনগণের সঙ্গে সুখে-দুঃখে সব সময় ছিলাম। শত দুর্যোগেও আমার এলাকাবাসীকে ছেড়ে কোথাও যাইনি। সুখ-শান্তির আশায় ভালো একটা বাড়িতে থাকব সে জন্য মন্ত্রী হয়েও মন্ত্রীপাড়ায় যাইনি। সে কারণেই এলাকার সন্তান হিসেবে এলাকাবাসীর কাছে আমি একটি ভোট দাবি করতে পারি।’

এদিকে ১৮ ডিসেম্বর ঢাকা-৯ আসনে বিএনপির প্রার্থী মির্জা আব্বাসের স্ত্রী আফরোজা আব্বাসের গণসংযোগে হামলার পর তিনি দুই দিন বিরতি দিয়ে গতকাল বিকেলে মুগদা ও কমলাপুর স্টেডিয়াম এলাকায় গণসংযোগ করেন।

Photo Gallery

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সাহিদুর রহমান,অফিসঃ ২২/১, তোপখানা রোড (৫ম তলা) বাংলাদেশ সচিবালয়ের উত্তর পার্শ্বে, ঢাকা-১০০০।
অফিস সেল ফোনঃ ০১৬১১-৯২০ ৮৫০, ই-মেইলঃ shiromoni67@gmail.com ,ওয়েবঃ www. Shiromoni.com

Social Widgets powered by AB-WebLog.com.