দূর্নীতি ও সন্ত্রাসমুক্ত নিরাপদ সিংড়া গড়তে শান্তি মিছিল ও সমাবেশ

নাটোর প্রতিনিধি (সুইট):দূর্নীতি ও সন্ত্রাসমুক্ত নিরাপদ সিংড়া গড়ার লক্ষ্যে নাটোরের সিংড়ায় শান্তি মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বিকেলে সিংড়ার সর্বস্তরের জনগণের আয়োজনে পৌর বাস টার্মিনাল হতে শান্তি মিছিল বের হয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। শান্তি মিছিলে উপজেলার সর্বস্তরের হাজার হাজার মানুষের ঢল নামে। পরে সেখানে উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নবীর উদ্দিনের সভাপতিত্বে শান্তি সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সিংড়া পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ও ইটালি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম আরিফ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তাজপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মিনহাজ উদ্দিন সরদার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও চৌগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম ভোলা, সাংগঠনিক সম্পাদক ও শেরকোল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লুৎফুল হাবিব রুবেল, ডাহিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যান এমএম আবুল কালাম, কলম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মঈনুল হক চুনু, চামারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রশিদুল ইসলাম মৃধা, সুকাশ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আঃ মজিদ, হাতিয়ানদহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহাবুব উল আলম, উপজেলা নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী আদেশ আলী সরদার। বক্তারা বলেন, সম্প্রতি উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শফিকুল ইসলাম শফিকের সমর্থক শেরকোল ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি কামরুল সরকারের উপর (মোবাইল ফোন বিষয়ে) তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে হামলা করে শফিকের নাতি নাজমুল হক পলক। কিন্তু এই ব্যক্তিগত ঘটনাকে রাজনৈতিক রুপ দিয়ে গত ২০ ফেব্রুয়ারী বিকেলে আচরনবিধি লংঘন করে উপজেলায় দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে রড, লোহার পাইপ, ঝাঁড়ু– ও বৈঠা নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করে শফিক সমর্থকরা। যা সিংড়ার ইতিহাসকে কলংকিত করেছে। মিছিলে আওয়ামী লীগ ও স্থানীয় নেতাদের অপমান করে বিভিন্ন শ্লোগান দেয়া হয়। মিছিলে শ্লোগানের মাধ্যমে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক সহ উপজেলার আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ সহ সিংড়ার জনসাধারণকে অপমানিত করা হয়েছে। বক্তারা আরও বলেন, শান্তিপ্রিয় সিংড়াকে অশান্ত করতে চায় মীর জাফর শফিকুল ইসলাম শফিক। কিন্তু তিনি জানেন না সিংড়াবাসীকে ভয় ভীতি দেখিয়ে জিম্মি করে নির্বাচনে জয়ী হওয়া যাবে না। শফিকুল ইসলাম শফিক আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হলেও তিনি আওয়ামী লীগ ও সাধারণ জনগণের সমর্থন হারিয়েছেন। খন্দকার মোস্তাক রুপী শফিকের হাতে সিংড়া মানুষরা নিরাপদ নয়। তাই জনগণ আজ ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। বক্তারা, দূর্নীতি ও সন্ত্রাসমুক্ত নিরাপদ সিংড়া গড়ার লক্ষ্যে উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আদেশ আলী সরদারকে দোয়াত কলম প্রতীকে বিপুল ভোট জয়যুক্ত করার আহবান জানান।

বসন্ত উৎসব পালিত

সিংড়া উপজেলা প্রশাসন ও গোল ই আফরোজ সরকারি অনার্স কলেজের আয়োজনে পহেলা ফাগুন বসন্ত উৎসব পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে বেলা ১১টায় উপজেলা চত্বর থেকে শুরু করে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী পৌর শহরের বিশেষ বিশেষ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালীতে অংশ গ্রহণ করেন, সিংড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো, সিংড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মনিরুল ইসলাম, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আমিনুল ইসলাম, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা আফছার আলী মন্ডল, চৌগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম ভোলা, গোল ই আফরোজ সরকারি অনার্স কলেজ ছাত্র সংসদের ভিপি জুয়েল, জিএস বেলায়েত, কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মুনির সহ পৌর এলাকার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থী।

শিক্ষার মান উন্নয়নে কাজ করছে সরকার

প্রতিনিধি:শহিদুল ইসলাম (সুইট):শিক্ষার মান উন্নয়নে বর্তমান সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে মন্তব্য করে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, শিক্ষাকে গুরুত্ব দিয়ে সরকার বছরের প্রথম দিন সারাদেশের সাড়ে ৪ কোটি শিক্ষার্থীর মাঝে বিনামূল্যে পাঠ্য বই প্রদান করে। আজ বিকেলে নাটোরের সিংড়া কোর্ট মাঠে “চলনবিল শিক্ষা উৎসব” অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। সিংড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতোর সভাপতিত্বে এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিংড়া পৌরসভার মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস, উপজেলা চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিক ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এ্যাডভোকেট ওহিদুর রহমান শেখ প্রমুখ। সিংড়া উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত এ উৎসবে উপজেলার কৃতি শিক্ষার্থী, শিক্ষক, রত্নগর্ভা মা, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ও সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সফল যারা কেমন তারাসহ ৯ টি ক্যাটাগরিতে ৮১০ জনকে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়

নাটোরের সিংড়ায় মাদক,সন্ত্রাস,জঙ্গিবাদও দর্নীতি বিরোধী কর্মশালা

মোঃশহিদুল ইসলাম সুইট(নাটোর)প্রতিনিধিঃ নাটোরের সিংড়া উপজেলার ১নং সুকাশ ইউনিয়নে বামিহলা রহমত ইকবাল অনার্স কলেজের আয়োজনে মাদক,সন্ত্রাস,জঙ্গিবাদ ও দর্নীতি বিরোধী কর্মশালা -২০১৯ অনুষ্টিত হয়েছ বামিহলা রহমত ইকবাল অনার্স কলেজের অধ্যক্ষ মো: মুনছুর রহমান এর সভাপতিত্বে : প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিংড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব সুশান্ত কুমার মাহাতো,উপজেলা মৎস সিনিয়র কর্মকর্তা মো আবু বক্কর সিদ্দিক এসময়ে উপস্থিত ছিলেন রেজাউল করিম মৃধা উপাধ্যক্ষ রহমত ইকবাল অনার্স কলেজ, মোঃ রুহুল আমিন অবসর প্রাপ্ত অধ্যক্ষ চলনবিল মহিলা ডিগ্রী কলেজ,প্রভাষক মিজানুর রহমান মিজান সহ আরো অনেকে এসময়ে সকলের উদ্দেশে বক্তারা বলেন, মাদকের ভয়াল গ্রাস থেকে যুবসমাজসহ সকলকে রক্ষায় এর বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। মাদকের বিরুদ্ধে নিজে সচেতন হতে হবে, অন্যকে সচেতন করতে হবে। মাদক জীবনকে কেড়ে নেয়, জীবনের স্বাভাবিক গতি ব্যাহত করে, ধীরে ধীরে পঙ্গুত্বের দিকে নিয়ে যায়।মাদক এমন মরণব্যাধি, আত্মঘাতিমূলক জীবন প্রবাহ, আত্মহননের অসৎ এবং কুৎসিত পথ, যা দুর্বিষহ করে জীবন, অন্ধকার আনে পরিবারে, ধ্বংস করে পারিবারিক সম্প্রীতি। তাই মাদক থেকে নিজে বাচুঁন অন্যকে বাচঁতে উৎসাহী করুন।

নাটোরের সিংড়ায় সংর্ঘষে নিহত ১

অনলাইন ডেস্ক ঃ সিংড়া(নাটোর)প্রতিনিধি শহিদুল ইসলাম সুইট: নাটোরের সিংড়ায় মাধা বাঁশবাড়িয়া গ্রামে জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিনের জেরে দুই পক্ষের সংর্ঘষে আলমগীর (৩৫) নামে একজন নিহত সহ উভয় পক্ষের ১৩জন আহত হয়েছে। এলাকাবাসীর সুত্রে জানা যায়, মাধা বাঁশবাড়িয়া গ্রামের আঃ সালাম প্রভাষক ও কামাল মেম্বারের দুটি গ্রুপের মধ্যে জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এ্রই জের ধরে শুক্রবার দুপুরে কামাল মেম্বার ও তার লোকজন নিয়ে সালাম প্রভাষকের বিরোধপূর্ণ জমিতে ইরি-বোরো ধান রোপনে বাঁধা দিলে সালাম প্রভাষকের লোকজনদের সাথে সংর্ঘষ শূরু হয়। প্রায় ঘন্টাব্যাপী এ সংর্ঘষ চলে। এতে কামাল মেম্বারের ছোট ভাই আলমগীর (৪০) নিহত হয়। নিহত আলমগীরকে নাটোর সদও হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত. ঘোষণা করেন। কামাল গ্রুপের আহতরা হলেন কামাল (৪৫), আওয়াল (৪০),রাসেল (২৮), শাহীন (৩০), বাবু (৩০)। আহতরা সিংড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে রাজশাহী মেডিক্যাল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। আঃ সালাম গ্রুপের আহতরা হলেন, আঃ সালাম (৫৫), রইচ উদ্দিন (৭০), আসাদ (৪৮), ভুট্টু (৪৪), সাঈদ (৫০), আবুল হোসেন (৭০), আলমাস (৩০)। আহতরা বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। সিংড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) মোঃ নেয়ামুল আলম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, জমিজমা নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে উত্তোজনা বিরাজ করছিল। আগামী সোমবার উভয় পক্ষে শালিসী বৈঠকের কথা ছিল। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছে।

Photo Gallery

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ সাহিদুর রহমান,অফিসঃ ২২/১, তোপখানা রোড (৫ম তলা) বাংলাদেশ সচিবালয়ের উত্তর পার্শ্বে, ঢাকা-১০০০।
অফিস সেল ফোনঃ ০১৬১১-৯২০ ৮৫০, ই-মেইলঃ shiromoni67@gmail.com ,ওয়েবঃ www. Shiromoni.com

Social Widgets powered by AB-WebLog.com.